খবর
২৭/১২/২০১৭
•  দক্ষিণ ২৪ পরগণায় সাগরদ্বীপ পরিদর্শনকালে, কাকদ্বীপের রুদ্রপুরে কৃষি মেলার উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এই কৃষিমেলার মঞ্চ থেকে তিনি সাম্প্রতিক কালে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের হাতে ক্ষতিপূরনের চেক তুলে দেন। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন মুড়িগঙ্গা নদীর উপর সেতু নির্মাণের কাজ খুব শিগ্রিই শুরু হবে। মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে সাগরদ্বীপের যোগাযোগ এবং পর্যটনের উন্নতি হবে। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকেই মাননীয় মুখ্যসচিবকে নির্দেশ দেন সাগরদ্বীপের ‘ভোরসাগর’ ও ‘রূপসাগর’ –কে পর্যটকদের কাছে আকর্ষণীয় করে গড়ে তোলার জন্য যাবতীয় প্রশাসনিক পদক্ষেপ নেবার জন্য। এরপরে তিনি ভারত সেবাশ্রম সংঘে যান সৌজন্য সাক্ষাতে। তারপর গঙ্গাসাগর মেলা চত্বরে যান আসন্ন মেলার বিভিন্ন প্রস্তুতির কাজ সরাসরি পর্যবেক্ষণ করেন।
২৬/১২/২০১৭
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী তাঁর ২ দিনের দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলা সফরকালে সাগরদ্বীপ পরিদর্শন করেন। আসন্ন গঙ্গাসাগর মেলার প্রস্তুতি সরেজমিনে পর্যবেক্ষণ করতেই মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী সাগরদ্বীপে আসেন। এদিন সন্ধে নাগাদ কপিল মুনির মন্দির পরিদর্শন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
২৪/১২/২০১৭
•  বড়দিনের প্রাক্কালে সেন্ট পলস ক্যাথিড্রালে ‘মিডনাইট মাস’ প্রার্থনা সভায় যোগদান করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
২৩/১২/২০১৭
•  কলকাতার ‘উত্তীর্ণ’ মঞ্চে এদিন ‘বাংলা সঙ্গীত মেলা-২০১৭’ এবং ‘ বিশ্ববাংলা লোকসংস্কৃতি উৎসব’-এর উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। রাজ্য সরকারের উদ্যোগে এদিন সঙ্গীত জগতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসাবে ‘সঙ্গীত সম্মান’, ‘সঙ্গীত মহাসম্মান’ ও ‘ বিশেষ সঙ্গীত সম্মান’ পুরস্কার প্রদান করা হয়। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী জানান, আগামী ৭ দিন ধরে কলকাতার বিভিন্ন মঞ্চে সঙ্গীত উপস্থাপনা করবেন প্রায় ৫ হাজার শিল্পী। এর পাশাপাশি বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য বহনকারী লোক সঙ্গীতও পরিবেশিত হবে রাজ্য জুড়ে।
২২/১২/২০১৭
•  কলকাতার পার্ক স্ট্রিটের ক্রিসমাস ফেস্টিভ্যাল এই নিয়ে ৭ বছরে পা রাখলো। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর মমতা ব্যানার্জ্জীর ভাবনাপ্রসূত এই ক্রিসমাস ফেস্টিভ্যাল ২০১১ সাল থেকে শুরু হয়। প্রতিবছর বড়দিন ও বর্ষবরণ উপলক্ষে কলকাতার বাতাবরণকে উৎসবের আমেজে ভরিয়ে রাখে। এদিন অ্যালেন পার্কে এই উৎসবের সূচনা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। বিগত বছরের মতোই বাহারি আলোর সাজে সেজে রঙিন হয়ে উঠেছে অ্যালেন পার্কসহ গোটা পার্ক স্ট্রিট। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী বলেন, শান্তি, সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্য বজায় রেখে উৎসব পালন করা প্রতিটি মানুষের দায়িত্ব। এরপর সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজে এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন তিনি।
২১/১২/২০১৭
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর নেতৃত্বে নবগঠিত তপশিলি জাতি উপদেষ্টা কাউন্সিলের প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত হল নবান্নে। মুখ্যমন্ত্রী জানান যে বড় সংখ্যায় জনপ্রতিনিধি ও বিশেষজ্ঞদের নিয়ে এই ধরণের কাউন্সিল এদেশে প্রথম গঠিত। প্রতি ৬ মাস অন্তর বৈঠক করে তপশিলি জাতিভুক্ত মানুষের সার্বিক উন্নয়নের তদারকি করবে এই কাউন্সিল। তপশিলি জনজাতির জন্য উপদেষ্টামন্ডলী আগেই গঠিত হয়েছিল। আগামীদিনে ওবিসি কাউন্সিল গঠন করতে চলেছে রাজ্য সরকার। তপশিলি জাতি, জনজাতি ও অন্যান্য অনগ্রসর মানুষের জন্য ইতিমধ্যেই বিভিন্ন জনহিতকর প্রকল্প চালু রয়েছে। রাজ্যের বিপুল সংখ্যক তপশিলি জাতিভুক্ত মানুষের অভাব অভিযোগের দ্রুত ও কার্যকরী সমাধানের জোরদার চেষ্টা চালাচ্ছে রাজ্য সরকার।
১৯/১২/২০১৭
•  সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে অগ্নি সুরক্ষায় ও রাজ্যপরিবহণে আরো গতির সঞ্চার। এদিন নবান্ন থেকে রাজ্যজুড়ে ৭৭টি রুটে মোট ১৫০টি বাসের শুভ যাত্রার সূচনা করে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এই বাসগুলির মধ্যে কিছু বাস শীততাপ নিয়ন্ত্রিত। কলকাতার পার্শ্ববর্তী জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের সঙ্গে নবান্ন পর্যন্ত এবং উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন নতুন/ পুরনো রুটে বাস চালু ও সংখ্যাবৃদ্ধির ফলে নিশ্চিত ভাবেই সাধারণ মানুষ আরো উপকৃত হবেন। এছাড়া এদিন ১১৭টি অগ্নি নির্বাপক যন্ত্রাদি-সহ দমকলের গাড়ীর শুভ সূচনা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। নবান্নের পার্শ্ববর্তী বাস স্ট্যান্ডে এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী, মাননীয় দমকলমন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং সংশ্লিষ্ট দফতরের সচিব এবং উচ্চ পদস্থ আধিকারিকরা।
১৬/১২/২০১৭
•  সাধারণ মানুষের স্বার্থে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী এদিন মাননীয় কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলিকে চিঠি লিখে প্রস্তাবিত ‘ ফিনান্সিয়াল রেজিলিউশন ডিপোজিট ইনস্যুরেন্স বিল,২০১৭’ কে সরাসরি জনবিরোধী ও দানবীয় আখ্যা দিয়ে বলেছেন যে এই সাধারণ মানুষের কষ্টার্জিত টাকার ভবিষ্যৎ নিয়ে ছিনিমিনি খেলার চেষ্টা বন্ধ হোক। কেন্দ্রীয় সরকার যেন এই ‘এফআরডিআই-২০১৭’ বিল পাশ করানোর আদৌ উদ্যোগ না নেয়। এই বিল পাশ হলে সাধারণ মানুষ চরম বিপদগ্রস্ত হবেন এবং দেশের আর্থিক ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়বে। অবিলম্বে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী যে যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করে এই বিল পাশ করানোর থেকে বিরত হন এবং বিলটিকে ফিরিয়ে নেবার যথাযথ ব্যবস্থা করেন।
১৪/১২/২০১৭
•  জেলা সফরে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী আজ বাঁকুড়ার খাতরায় এক সরকারি পরিষেবা প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। দিনের অনুষ্ঠানে মুকুটমণিপুরের পর্যটনকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলতে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগের সূচনা করা হয়। নানান ধরণের সৌন্দর্য বৃদ্ধির প্রকল্পের মধ্যে মুকুটমণিপুর পর্যটক আবাসকে অত্যাধুনিক করে তোলা ও ঘরের সংখ্যাবৃদ্ধি , আলো-শব্দের মাধ্যমে পরিবেশকে আরও মনোরম করে তোলা, নতুন বেশ কয়েকটি পর্যটক আবাস, পথ আলোর সৌন্দর্য বৃদ্ধি ও উচ্চ বাতিস্তম্ভ স্থাপন, ল্যান্ডস্কেপের সৌন্দর্য বৃদ্ধি, মুকুটমণিপুর জলাধারের নৌকাবিহার সংক্রান্ত সুরক্ষা ব্যবস্থার সূচনা ইত্যাদি। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী বলেন যে বাঁকুড়া জেলায় সরকার অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে পানীয় জল সরবরাহ কেন্দ্র, স্বাস্থ্য, বিদ্যুৎ পরিষেবার ক্ষেত্র বৃদ্ধি, পর্যটন, স্থানীয় মানুষের দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে নানান প্রকল্প, কর্মসংস্থান এবং সামগ্রিক উন্নয়নের কাজ করে চলেছে। আগামীদিনে এই কাজে আরও গতি আনার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে, ফলে দেশের মধ্যে একদা অন্যতম পিছিয়ে পড়া জেলা বাঁকুড়া ক্রমশ উন্নতির পথে হাঁটছে, আরো উন্নতি হবে। এরাজ্যের জঙ্গলমহল একদিন উন্নয়নের মডেল হয়ে উঠবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।
১৩/১২/২০১৭
•  পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উদ্যোগে আজ থেকে ৫ বছর আগে শুরু হয় প্রতিযোগীতামূলক বার্ষিক ক্রীড়ানুষ্ঠান, ‘জঙ্গলমহল কাপ’। প্রতি বছরের মতো এ বছরও ‘জঙ্গলমহল কাপে’র পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বাঁকুড়ার ইন্দপুরে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। জঙ্গলমহলের তরুণদের খেলাধূলায় উৎসাহিত করার লক্ষ্যেই এই উদ্যোগ। ফুটবল, কাবাডি, তীরন্দাজি, ছৌ এবং আরও বিভিন্ন ক্ষেত্রে পারদর্শিতার স্বীকৃতি দেয় এই জঙ্গলমহল কাপ। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী বলেন, খেলাধূলার পাশাপাশি শিক্ষা, সংস্কৃতিতেও সমান দক্ষতার পরিচয় দিচ্ছে জঙ্গলমহলের মানুষ। রাজ্যব্যাপী বন্যপ্রাণ দিবস পালনের সূচনা করেন তিনি। এদিনের অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে একগুচ্ছ প্রকল্পের সূচনা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী এবং সাধারণ মানুষের হাতে বেশ কিছু পরিষেবাও তুলে দেন তিনি।
১২/১২/২০১৭
•  জেলা সফরে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। আজ পুরুলিয়ার কোটশিলায় এক প্রশাসনিক-পর্যালোচনা বৈঠকে জেলার উন্নয়নের গতি নিয়ে সরেজমিনে আলোচনা করেন। এর পর তিনি স্থানীয় মানুষের হাতে নানা সরকারি পরিষেবা তুলে দেন। এদিন একটি কারখানার উদ্বোধন করে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী পুরুলিয়ায় আরও শিল্প আসছে বলে জানান। এছাড়া বহুসংখ্যক সরকারি প্রকল্পের সূচনা ও শিলান্যাস করেন তিনি। পরিকাঠামো উন্নয়ন, স্বাস্থ্য, শিক্ষাসহ প্রচুর কর্মসংস্থানের সুযোগ রয়েছে এমন নানা প্রকল্প এবং জেলার সার্বিক উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরার পাশাপাশি মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী জানান যে এই এলাকার জনজাতি মানুষের সার্বিক উন্নতিই সরকারের লক্ষ্য। ইতিমধ্যে কুর্মী উন্নয়ন ও সাংস্কৃতিক পর্ষদ গঠন করা হয়েছে। এই পর্ষদের প্রধান কার্যালয় হবে পুরুলিয়ায় এবং বিশেষ কার্যালয় হবে ঝাড়গ্রামে।
১১/১২/২০১৭
•   নব গঠিত পশ্চিম বর্ধমান জেলায় মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী প্রথম সফরে এলেন। এদিন কাঁকসায় এক সরকারি অনুষ্ঠানে বেশ কয়েকটি নতুন প্রকল্পের উদ্বোধন করার পাশাপাশি পরিকাঠামো উন্নয়ন, পানীয় জল সরবরাহ, স্বাস্থ্য, স্বনির্ভর প্রকল্পসহ বেশ কয়েকটি জনকল্যাণকর প্রকল্পের সূচনা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। এদিন তিনি ঘোষণা করেন এই অঞ্চলের মানুষের দীর্ঘ দিনের দাবী ও স্বপ্ন - অজয় নদের উপর সেতু, সেই স্বপ্ন সাকার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কিছু দিনের মধ্যেই সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হবে। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী স্থানীয় মানুষের হাতে বিভিন্ন পরিষেবা তুলে দেন।
০৮/১২/২০১৭
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উপস্থিতিতে ৬৯তম আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসের মূল কর্মসূচী পালিত হল, কলকাতা হাইকোর্টের সার্ধ-শতবার্ষিক ভবনে। রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের পক্ষ থেকে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীকে স্মারক উপহার দেওয়া হয়।

•   আসন্ন গঙ্গাসাগর মেলার প্রস্তুতি ও নিরাপত্তা বিষয়ে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক হল নবান্নে। আগামী ১০ জানুয়ারি থেকে ১৬ জানুয়ারি, ২০১৮ পর্যন্ত চলবে গঙ্গাসাগর মেলা। তীর্থযাত্রীদের নিরাপত্তার পাশাপাশি বিমার আওতায় নিয়ে আসার কথাও আলোচনা হয় এদিন বৈঠকে।
০৭/১২/২০১৭
•  আজ ইনফোকম -২০১৭ র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। বিশ্ববঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলনে বাংলার নতুন তথ্য প্রযুক্তি নীতি ঘোষণা করা হবে বলে এদিন জানান তিনি।

•   সীমান্ত বিষয়ক এক উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র দপ্তর আহুত এই সভায় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আরো ৪ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। সভাটি অনুষ্ঠিত হয় সদ্য নির্মিত নবান্ন সভাঘরে।
০৫/১২/২০১৭
•  কলকাতার নেতাজী ইনডোর স্টেডিয়ামে সংখ্যালঘু উন্নয়ন পর্ষদের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এই অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের প্রায় ৫ লক্ষ ছাত্রছাত্রীর হাতে স্কলারশিপ তুলে দেন তিনি।
০১/১২/২০১৭
•  রাজ্যে আর একটি নতুন জেলার সূচনা হতে চলেছে। উত্তর ২৪ পরগনার হাড়োয়ায় এক সরকারি অনুষ্ঠানে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী বলেন, বসিরহাটকে পৃথক জেলার মর্যাদা দেওয়া হবে। এর ফলে উন্নয়নে আরো গতি আসবে, প্রশাসনিক কাজেও গতি আসবে। এদিন মঞ্চ থেকে একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এছাড়া,বেশ কিছু সরকারি পরিষেবা প্রদান করা হয়।