অনুষ্ঠান
১২/০৬/২০১৮
আলিম, ফাজিল ও হাই মাদ্রাসা পরীক্ষা, ২০১৮-র কৃতীদের সংবর্ধনা
•  আলিম, ফাজিল ও হাই মাদ্রাসা পরীক্ষা, ২০১৮-র কৃতীদের নবান্নে সংবর্ধনা জানালেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎকারে ছাত্রছাত্রীদের ভবিষ্যতে ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়র, শিক্ষক অথবা আইএএস, আইপিএস, ডব্লিউবিসিএস পদে কাজ করার ইচ্ছাকে সাধুবাদ জানিযান তাঁদের শুভেচ্ছা জানান। ছাত্রছাত্রীদের পাশাপাশি তাঁদের পরিবার, শিক্ষক ও শুভাকাঙ্ক্ষীদেরও শুচেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।
১১/০৬/২০১৮
বোর্ড পরীক্ষা ২০১৮-র সেরার সেরাদের সংবর্ধনা
•  বোর্ড পরীক্ষা ২০১৮-র সেরার সেরাদের সংবর্ধনা দিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এদিন নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে কৃতীদের হাতে পুরস্কার ও সংশাপত্র তুলে দেন তিনি। ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষক ও পরিবারকেও শুভেচ্ছা জানান তিনি।
২১/০৫/২০১৮
বঙ্গবিভূষণ ও বঙ্গভূষণ - ২০১৮
•  এদিন বাংলার সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মান বঙ্গবিভূষণ ও বঙ্গভূষণ প্রদান করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। বাংলার বিভিন্ন ক্ষেত্রের গুণীজন এবং বাংলার সংস্কৃতির সঙ্গে সম্পৃক্ত বিশিষ্ট জনকে পুরস্কৃত করার এই অনুষ্ঠান শুরু হয়েছিল ২০১১ সালে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে। সপ্তম বর্ষে বঙ্গভূষণ ও বঙ্গবিভূষণ প্রাপকদের তালিকা – বঙ্গবিভূষণ: প্রবাদপ্রতীম সঙ্গীত শিল্পী আশা ভোঁসলে, গিরিজা শঙ্কর রায়(শিক্ষাবিদ),সুহৃদ কুমার ভৌমিক (ভাষাতাত্ত্বিক), সমরেশ মজুমদার(সাহিত্যিক), সুব্রত ভট্টাচার্য (ফুটবলার), মহম্মদ হাবিব(ফুটবলার), প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়(অভিনেতা) এবং অবসর প্রাপ্ত বিচারপতি শ্যামল কুমার সেন। বঙ্গভূষণ: শ্রীরাধা বন্দ্যোপাধ্যায়, অরুন্ধতী হোমচৌধুরী(সঙ্গীত শিল্পী),পার্থ ঘোষ(বাচিক শিল্পী)। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী জানান যে রাজ্যের মুখ্যসচিব স্বয়ং, বরেণ্য কত্থক শিল্পী বিরজু মহারাজকে তাঁর বাসগৃহে গিয়ে বঙ্গবিভূষণ সম্মান প্রদান করবেন।
০৯/০৫/২০১৮
কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মদিবস - ২০১৮
•  রাজ্য জুড়ে পালিত হল ২৫শে বৈশাখ, কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মদিবস । মূল অনুষ্ঠানটি ছিল কলকাতার রবীন্দ্রসদন সংলগ্ন ক্যাথিড্রাল রোডে। এই দিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। বাংলার শিল্প-সংস্কৃতি জগতের গুণীজনের সমাবেশ ঘটেছিল এদিন কবিগুরুর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে। প্রতি বছরের মতই বিপুল জনসমাবেশ ছিল, এদিন থেকে নন্দন চত্বরে শুরু হল কবিপক্ষের অনুষ্ঠান। ১০ মে থেকে আগামী ২২ মে,২০১৮ পর্যন্ত নন্দনের মুক্তমঞ্চ, শিশির মঞ্চ, রবীন্দ্র সদনে চলবে কবি প্রণাম।
২০/০৪/২০১৮
সিভিল সার্ভিস দিবস - ২০১৮
•  সিভিল সার্ভিস দিবস পালিত হল কলকাতার আলিপুরের ‘উত্তীর্ণ’ মঞ্চে। গত বছর ২০১৭ সালে রাজ্যে প্রথম সিভিল সার্ভিস দিবস পালন করা শুরু হয়। এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। রাজ্যের সিভিল সার্ভিসের সদস্যবৃন্দের বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে সরকারের জনহিতকর কর্মসূচী ও প্রকল্পের রূপায়নে, ভাষণে বলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। তাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে আদতে উপকৃত হন সাধারণ মানুষ। রাজ্যের উন্নয়নে গতি আনার ক্ষেত্রে সিভিল সার্ভিসের সদস্যরা বিশেষ ভূমিকা রেখেছেন। তাই, রাজ্যের সকল আইএএস, আইপিএস এবং রাজ্যের সিভিল সার্ভিসের সদস্যদের এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের এদিন অভিনন্দন জানান মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
২৭/০২/২০১৮
২২তম যাত্রা উৎসব - ২০১৮
•  যাত্রা, বাংলার এক ঐতিহ্যময় বিনোদন। এদিন উত্তর ২৪ পরগনার বারাসাতের কাছারি ময়দানে ২২তম যাত্রা উৎসবের সূচনা করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। রাজ্য সরকার ও তার তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ এবং পশ্চিমবঙ্গ যাত্রা অ্যাকাডেমির যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত হয় এই যাত্রা উৎসব। রাজ্যের বিভিন্ন মঞ্চে ৩২ দিন ব্যাপী এই যাত্রানুষ্ঠান চলবে। সুদূর অতীত থেকে শুরু করে আজও পর্যন্ত লক্ষ লক্ষ মানুষকে বিনোদন করে চলেছে গ্রাম বাংলার এই যাত্রাপালা। যাত্রা জগতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ এদিন রাজ্য সরকারের তরফ থেকে ‘শান্তিগোপাল-তপনকুমার’ সম্মান প্রদান করা হয়।
২১/০২/২০১৮
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস - ২০১৮
•  দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুরে, পূর্ণ মর্যাদায় পালিত হল আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
০৭/০২/২০১৮
হিমল-তরাই ডুয়ার্স স্পোর্টস ফেস্টিভ্যাল - ২০১৮
•  উত্তরবঙ্গ সফরে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। এদিন দার্জিলিং ম্যালে, রাজ্য সরকারের ব্যবস্থাপনায় হিমল-তরাই ডুয়ার্স স্পোর্টস ফেস্টিভ্যাল, ২০১৮-তে উপস্থিত ছিলেন তিনি। দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার ও কালিম্পং জেলার ৮০৫টি ক্লাব অংশগ্রহণ করেছিল এই ক্রীড়া উৎসবে। তীরন্দাজি, মার্শাল আর্ট, ফুটবল ও ভলিবলে অংশ নিয়েছিল প্রায় ১৮,৫০০ জন খেলোয়াড়। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী বলেন, পাহাড় সকলে ভালবাসে। পাহাড়ে সুখ,শান্তি, সমৃদ্ধি বজায় রাখাটাই সকলের কাছেই অভিপ্রেত। পাহাড়ের ভাই-বোনেদের হাসি অক্ষুণ্ণ রাখতে রাজ্য সরকার সর্বদাই সচেষ্ট। উন্নয়নের কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে সকলকে আরও উদ্যমী হতে হবে। উচ্চ শিক্ষার মান উন্নয়নে উত্তরবঙ্গে নতুন বিশ্ববিদ্যালয় তৈরী করার কথা ঘোষনা করেন এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
৩০/০১/২০১৮
৪২তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা - ২০১৮
•  শুরু হল ৪২তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বই মেলা। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উপস্থিতিতে সেন্ট্রাল পার্কে মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত হলেন বিশিষ্ট অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। বাংলা সংস্কৃতি জগতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ এই সম্মান পেলেন তিনি। এই বছর বইমেলার থিম দেশ ফ্রান্স। উপস্থিত ছিলেন ভারতে ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার জিয়েগ্লার। কলকাতা পুলিশ ও রাজ্য পুলিশের স্টলসহ বেশ কয়েকটি স্টলের উদবোধন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। বাংলাসহ হিন্দী ও সাঁওতালি ভাষায় অনুবাদ করা তাঁর মোট নয়টি বই প্রকাশিত হয় এদিন। এবারের বই মেলা চলবে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। আগামী বছর বই মেলা শুরু হবে ১৯ জানুয়ারি একথা ঘোষণা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
২৯/০১/২০১৮
বাংলার আবাস প্রকল্প - ২০১৮
•  রাজ্যে ৫ লাখ পরিবার আজ একদিনে মাথার উপর ছাদ পেলো ‘বাংলার আবাস’ প্রকল্পের মাধ্যমে। এদিন নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন যে একই দিনে ৫লাখ পরিবারের কাছে এই পরিষেবা তুলে দেওয়া এক অনন্য রেকর্ড। ইতিমধ্যে গত ৬ বছরে ‘আমার বাড়ী’ প্রকল্পে এ রাজ্যের ২৫ লাখ পরিবার বাড়ী পেয়েছে। গ্রামীণ আবাসন প্রকল্পের রূপায়ণে পশ্চিমবঙ্গ দেশের মধ্যে সেরা এবং সার্বিক ভাবে আবাসন সমস্যা নিরসনে দেশের মধ্যে প্রথম সারির রাজ্য।
২৭/০১/২০১৮
খাদ্যসাথী দিবস - ২০১৮
•  রাজ্যের একজন মানুষও যেন অনাহারে দিন না কাটায় – মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর এই চিন্তার থেকেই একদা সূচনা হয় ‘খাদ্যসাথী’ প্রকল্পের। আজ এই প্রকল্পের অধীনে সাড়ে নয় কোটি রাজ্যবাসীর মোট সিংহ ভাগ মানুষ ২টাকা কেজি দরে চাল পাচ্ছেন। একশ’ শতাংশ গ্রাহককে ডিজিটাল রেশন কার্ড প্রকল্পের আওতায় আনা সম্ভব হয়েছে। জঙ্গল মহল থেকে শুরু করে চা-বাগান, সিঙ্গুর থেকে শুরু করে আয়লাদুর্গত অঞ্চলের লক্ষ লক্ষ মানুষ এই প্রকল্পের সুবিধা পাচ্ছেন। তাঁদের দু’বেলার আহার সুনিশ্চিত হয়েছে। এ সবই সম্ভব হয়েছে রাজ্যের জন পরিষেবা এবং খাদ্য সুরক্ষা পদ্ধতির সুষ্ঠু পরিচালনার ফলেই, জানিয়েছেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
২৬/০১/২০১৮
৬৯তম প্রজাতন্ত্র দিবস - ২০১৮
•  রেড রোডে, যথোপযুক্ত মর্যাদায় পালিত হল ৬৯তম প্রজাতন্ত্র দিবস। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী এবং রাজ্য মন্ত্রিসভার সকল সদস্যের উপস্থিতিতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন মাননীয় রাজ্যপাল মহাশয়। বর্ণময় এই অনুষ্ঠানকে গরিমান্বিত করে তোলে প্রতিরক্ষা বাহিনী ও রাজ্য পুলিশ বাহিনীর কুচকাওয়াজ। এছাড়া, রাজ্যের শিল্প, সংস্কৃতি, ঐতিহ্য ও নানা জনহিতকর প্রকল্পকে জনসমক্ষে তুলে ধরা হয় বিভিন্ন ট্যাবলো ও প্যারেডের মাধ্যমে, যা ছিল এই অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণ। বাংলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছাত্রছাত্রীরা এদিনের কুচকাওয়াজে অংশ নেয়। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী প্রজাতন্ত্র দিবসের এদিনের অনুষ্ঠানটিকে আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য অংশগ্রহণকারী সকলকে এবং উপস্থিত দর্শকদের ধন্যবাদ জানান।
২৫/০১/২০১৮
সমবায় দফতর সম্মান - ২০১৮
•  এদিন নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে সমবায় দফতরের উদ্যোগে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। রাজ্যের সমবায়গুলির দায়িত্বপ্রাপ্তদের সঙ্গে এই আলোচনাসভায় তিনি বলেন, গ্রামীণ অর্থনীতি শক্তিশালী করতে সমবায়ের বিকল্প নেই। কিভাবে সমন্বয় বাড়ানো যায়, তা নিয়ে সকলকেই চিন্তা ভাবনা করতে হবে। সব রকমের সহায়তার জন্য প্রস্তুত রাজ্য সরকার, এজন্য মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে একটি উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন কমিটি তৈরি করার কথা বলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
২৪/০১/২০১৮
‘খেল সম্মান - ২০১৮
•  বাংলার বিশিষ্ট ক্রীড়া ব্যক্তিত্বেরা পুরস্কৃত হলেন কলকাতার নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে। পুরস্কার প্রদানের পাশাপাশি এদিন ১৫ হাজারটি ক্লাবকে আর্থিক সহায়তা দেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এদিন পরিকাঠামো উন্নয়ন ও খেলাধূলায় উৎসাহ যোগাতে রাজ্য সরকারের এই উদ্যোগ। প্রাক্তন খেলোয়াড়দের ‘স্বাস্থ্যসাথী’ প্রকল্পের আওতায় আনার কথা ঘোষণা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। এদিন ‘খেল সম্মান’ পেলেন মনিকা সরেন, স্বপ্না বর্মণ, ভাস্কর মুখার্জি, অরিন্তপ দাশগুপ্ত, ইন্দ্রজিৎ পাল, প্রিয়াঙ্কা রায়, সঙ্গীতা বাস্ফোর, দেবাশিস সেন, অঙ্কুর দাস, শুভঙ্কর প্রামাণিক ও রিমো সাহা। ‘বাংলার গৌরব’ সম্মানে ভূষিত হলেন আশিস মণ্ডল, অপর্ণা ঘোষ, পলাশ নন্দী, মিঠু মুখার্জি, মিনতি রায়, তনুময় বসু, তরুণ ডে, অভিজিৎ দেবনাথ, রুপালী পাণ্ডে, ইনাম উর রহমান, গৌরী ঘোষ, দিলিপ কুমার সেন, ও ফ্রান্সিস গোমেজ। ‘ক্রীড়া গুরু’ সম্মান দেওয়া হল সুবাস সরকারকে, ‘জীবনকৃতি’ সম্মান পেলেন রীতা সেন ও অরুণ ঘোষ। এছাড়া বিশেষ সম্মান দেওয়া হল ঝুলন গোস্বামী, সৌরভ কোঠারি, সৌম্যজিৎ ঘোষ, সায়নী দাস, তৃষা দেব, অতনু দাস, অর্পিতা মুখার্জি, মেহুলি ঘোষ, প্রাঞ্জল ব্যানার্জি, রহিম আলি, অভিজিৎ সরকার, জিতেন্দ্র সিং এবং ৭১তম সন্তোষ ট্রফি জয়ী বাংলা ফুটবল দলকে।
১৮/০১/২০১৮
টেলি অ্যাকাডেমি পুরস্কার বিতরণী -২০১৮
•  টেলি অ্যাকাডেমি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে কলকাতার নজরুল মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। রাজ্য সরকারের উদ্যোগে বিগত ২০১৪ সাল থেকে দূরদর্শনে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ এই ‘টেলি সম্মান’-এর সূচনা হয়। টেলিভিশনের সঙ্গে যুক্ত সকল কলাকুশলীদের স্বাস্থ্য বিমার অঙ্ক বৃদ্ধি করার কথা ঘোষণা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। এদিন সেরা শিশু অভিনেতার পুরস্কার পেল ‘রাণি রাসমণি’ ধারাবাহিকের দিতিপ্রিয়া রায়, ‘অন্দরমহল’-এর জন্য অস্মি ঘোষ, ‘মহাপ্রভু শ্রীচৈতন্য’র জন্য ঈশান সাধুখাঁ, ‘রাখীবন্ধন’-এর জন্য রীতিকা চক্রবর্তী ও সোহম বসু রায়চৌধুরী। সেরা গল্প ও চিত্রনাট্যের জন্য পুরস্কার পেলেন ‘রাণি রাসমণি’ ধারাবাহিকের লেখক শাশ্বতী ঘোষ, ‘কুসুম দোলা’ ধারাবাহিকের জন্য সেরা সহ-অভিনেত্রীর পুরস্কার পেলেন বিদীপ্তা চক্রবর্তী, ‘রেশম ঝাঁপি’ ধারাবাহিকের নেগেটিভ চরিত্রের জন্য জুন মালিয়া। সেরা নন-ফিকশন ধারাবাহিকের শিরোপা পেল ‘সারেগামাপা’ এবং পুরস্কৃত হলেন ‘সারেগামাপা’র পরিচালক অভিজিৎ সেন। সেরা ‘অন-স্ক্রিন’ জুটির পুরস্কার পেলেন ‘কে আপন কে পর’ ধারাবাহিকের বিশ্বজিৎ ও পল্লবী। সেরা পরিচালকের পুরস্কার পেলেন ‘কুসুম দোলা’ ধারাবাহিকের জন্য শৈবাল মুখোপাধ্যায় ও ‘রাণি রাসমণি’ ধারাবাহিকের জন্য রাজেন্দ্রপ্রসাদ। ‘জয় কালি কলকাত্তাওয়ালি’ ধারাবাহিকের জন্য জনপ্রিয়তম অভিনেত্রীর শিরোপা উঠল অনন্যা চট্টোপাধ্যায়ের মাথায়। সেরা অভিনেতা হলেন প্রতীক সেন (খোকাবাবু), ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী ( কুন্দ ফুলের মালা), শেখ রিজওয়ান (প্রতিদান), সেরা অভিনেত্রী হলেন সন্দীপ্তা সেন (প্রতিদান), রুকমা রায় (কুন্দ ফুলের মালা)। জনপ্রিয়তম ধারাবাহিকের পুরস্কার পেল ‘খোকাবাবু’। অনুষ্ঠানের বিশেষ আকর্ষণ ছিল টেলি-শিল্পীদের বর্ণময় সাংস্কৃতিক উপস্থাপনা।
১০/০১/২০১৮
‘বিবেক চেতনা উৎসব - ২০১৮
•  রামকৃষ্ণ মিশনের সহযোগিতায় রাজ্যের প্রতিটি ব্লকে, পুর এলাকার প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ‘বিবেক চেতনা উৎসব’ পালন করা হবে। ১০ জানুয়ারী থেকে ১২ জানুয়ারী রাজ্য জুড়ে এই উৎসব চলবে। এদিন বাবুঘাটে উৎসবের শুভ সূচনা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এদিন তিনি বলেন ঐক্য, শান্তি, সৌহার্দ্য –এর জন্য স্বামী বিবেকানন্দের ভাবনা মানুষের কাছে আজ অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক। তাই, উৎসবের মাধ্যমে সরকার বিবেকানন্দের ভাবনা মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিতেই এই উদ্যোগ। সেবাধর্ম ও ভ্রাতৃত্ববোধের চেতনার বিকাশই আজ দেশজোড়া সংকটের একমাত্র সমাধান। এদিন তিনি ঘোষণা করেন ঐতিহাসিক শিকাগো ধর্মসম্মেলনের ১২৫বর্ষ পূর্তি উপলক্ষে এবছর যথাযোগ্য সম্মান দিয়ে পালন করা হবে। ‘স্বামী বিবেকানন্দ যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে’ এই উপলক্ষে এক লাখ যুবক-যুবতীর সমাবেশ হবে। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী বিবেক চেতনা উৎসবের উদ্বোধনের পর কিছু সময় গঙ্গাসাগর তীর্থযাত্রীদের জন্য বাবুঘাটের অস্থায়ী শিবিরে যান এবং ব্যবস্থাপনা খতিয়ে দেখেন।
০৮/০১/২০১৮
‘উত্তরবঙ্গ উৎসব - ২০১৮
•  উত্তরবঙ্গ সফরে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। সফরের প্রথম দিনে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী শিলিগুড়িতে কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে ‘উত্তরবঙ্গ উৎসব’-এর শুভ সূচনা করেন। উত্তরবঙ্গের আটটি জেলা জুড়ে এই উৎসব চলবে ১৪ জানুয়ারী পর্যন্ত। উদার প্রকৃতি, উন্নত সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য, পর্যটনের বিপুল সম্ভার ও সম্ভাবনা, স্থানীয় মানুষের বিভিন্ন সাফল্যের প্রতি সম্মাননা, সব মিলিয়েই উত্তরবঙ্গ উৎসব। এদিনের উৎসব সূচনা মঞ্চ থেকেই ‘বঙ্গরত্ন’ পুরস্কার প্রদান করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। প্রাপকরা হলেন,অর্থনীতিবিদ ডঃ মানস দাশগুপ্ত (দার্জিলিং), লোকসংস্কৃতি গবেষক দীনেশ চন্দ্র রায় ( জলপাইগুড়ি), সমাজসেবী প্রেম দরজি ভুটিয়া (কালিংপং),শিক্ষাবিদ ডঃ দেবকুমার মুখোপাধ্যায় (কোচবিহার), লোকযন্ত্রশিল্পী মলিন চন্দ্র দাস (কোচবিহার), লেখক প্রো: দিলীপ কুমার রায় ( আলিপুরদুয়ার), অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক প্রেমবিহারী ঠাকুর ( উত্তর দিনাজপুর), মলিকিউলার বায়োলজির গবেষক প্রো: তাপস কুণ্ডু (দক্ষিণ দিনাজপুর), সমাজসেবী ডঃ রাধাগোবিন্দ ঘোষ ( মালদা)। এছাড়া উত্তরবঙ্গের জেলাগুলির মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এদিন ওই মঞ্চ থেকেই মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী রিমোর্ট কন্টোলের মাধ্যমে কলকাতার রামকৃষ্ণ মিশন সেবা প্রতিষ্ঠানে ( শিশু মঙ্গল) স্বামী বিবেকানন্দের এক মর্মর মূর্তির উদ্বোধন করেন ‘তিথি পূজা’-র( জন্মতিথিতে পূজা) বিশেষ দিনে।
০৫/০১/২০১৮
রাজ্যের নিজস্ব প্রতীক বা লোগোর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন
•  রাজ্যের নিজস্ব প্রতীক বা লোগোর সাংবিধানিক স্বীকৃতি পেল বাংলা। এদিন নবান্নে রাজ্যের নতুন প্রতীকের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এখন থেকে সরকারি সমস্ত কাজে ব্যবহৃত হবে রাজ্যের এই নতুন প্রতীকটি, জানান মুখ্যমন্ত্রী। স্বাধীনতা উত্তর সুদীর্ঘ ৭০ বছর অতিক্রম করে এ রাজ্যের মুকুটে নতুন পালকের সংযোজন হল। লোগোটির রূপকার মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং।
০৪/০১/২০১৮
বাউল ও লোক উৎসব - ২০১৮
•  এদিন বীরভূমের জয়দেব-কেঁদুলিতে জয়দেব মেলায় বার্ষিক ‘বাউল ও লোক উৎসব’-এর সূচনা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা সহস্রাধিক বাউলের সুর মূর্চ্ছনায় মুখর হয়ে ওঠে এই অনুষ্ঠান। বাংলার ঐতিহ্যমণ্ডিত বাউল ও লোকগানের সাক্ষ্য প্রকৃত অর্থেই বহন করে এই উৎসব। বাউল শিল্পীদের সাধনা ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধার কথা মাথায় রেখে ‘বাউল বিতান’ নির্মানের পরিকল্পনা করা হয়। এছাড়া পর্যটকদেরও আকৃষ্ট করবে এই বাউল বিতান। এদিন ‘বাউল বিতান’এর শিলান্যাস করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, এখন থেকে প্রতি বছর মকর সংক্রান্তির দিন পালিত হবে ‘লোক প্রসার শিল্পী দিবস’, বাংলার লোক সংস্কৃতির একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ এই লোক প্রসার শিল্প।
০৩/০১/২০১৮
জঙ্গলমহল উৎসব - ২০১৮
•  বীরভূম জেলা সফরে, আহমদপুরের অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। ‘জঙ্গলমহল উৎসব’-এর উদ্বোধন করেন। এই উৎসব ৩ জানুয়ারী থেকে ১০ জানুয়ারী পর্যন্ত চলবে ঝাড়গ্রামে।
০২/০১/২০১৮
মাটি উৎসব – ২০১৮
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী পূর্ব বর্ধমান জেলার ‘মাটি তীর্থ- কৃষি কথা’ প্রাঙ্গণে ‘মাটি উৎসব – ২০১৮’ –র শুভ সূচনা করলেন। মাটির সাথে মানুষের অস্তিত্ব মিলে মিশে আছে, জীবনধারণ থেকে জীবন যাপনে মিশে আছে মাটি! মাটি ছাড়া সভ্যতা অচল। এই ভাবনাকে মাথায় রেখে ২০১৩ সালে শুরু মাটি উৎসব। কৃষি ও কৃষি বিষয়ক বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য ‘কৃষক সম্মান’ প্রদান করেন।
২৩/১২/২০১৭
বাংলা সঙ্গীত মেলা-২০১৭
•  কলকাতার ‘উত্তীর্ণ’ মঞ্চে এদিন ‘বাংলা সঙ্গীত মেলা-২০১৭’ এবং ‘ বিশ্ববাংলা লোকসংস্কৃতি উৎসব’-এর উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। রাজ্য সরকারের উদ্যোগে এদিন সঙ্গীত জগতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসাবে ‘সঙ্গীত সম্মান’, ‘সঙ্গীত মহাসম্মান’ ও ‘ বিশেষ সঙ্গীত সম্মান’ পুরস্কার প্রদান করা হয়। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী জানান, আগামী ৭ দিন ধরে কলকাতার বিভিন্ন মঞ্চে সঙ্গীত উপস্থাপনা করবেন প্রায় ৫ হাজার শিল্পী। এর পাশাপাশি বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য বহনকারী লোক সঙ্গীতও পরিবেশিত হবে রাজ্য জুড়ে।
২২/১২/২০১৭
ক্রিসমাস ফেস্টিভ্যাল ২০১৭
•   কলকাতার পার্ক স্ট্রিটের ক্রিসমাস ফেস্টিভ্যাল এই নিয়ে ৭ বছরে পা রাখলো। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর মমতা ব্যানার্জ্জীর ভাবনাপ্রসূত এই ক্রিসমাস ফেস্টিভ্যাল ২০১১ সাল থেকে শুরু হয়। প্রতিবছর বড়দিন ও বর্ষবরণ উপলক্ষে কলকাতার বাতাবরণকে উৎসবের আমেজে ভরিয়ে রাখে। এদিন অ্যালেন পার্কে এই উৎসবের সূচনা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। বিগত বছরের মতোই বাহারি আলোর সাজে সেজে রঙিন হয়ে উঠেছে অ্যালেন পার্কসহ গোটা পার্ক স্ট্রিট। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী বলেন, শান্তি, সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্য বজায় রেখে উৎসব পালন করা প্রতিটি মানুষের দায়িত্ব। এরপর সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজে এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন তিনি।
১০/১১/২০১৭
২৩ তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উপস্থিতিতে নেতাজী ইনডোর স্টেডিয়ামে এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে উদ্বোধন হল ২৩তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। বর্ষীয়ান অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনের উজ্জ্বল উপস্থিতি ছিল অন্যান্য বছরের মতোই। প্রবীণ চলচ্চিত্র পরিচালক মহেশ ভাট, প্রখ্যাত অভিনেতা কামাল হাসান, অভিনেত্রী কাজল, জনপ্রিয় অভিনেতা তথা বাংলার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর শাহরুখ খান, বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী কুমার শানু ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চিত্রপরিচালক মাইকেল উইন্টারবটমের বর্ণময় উপস্থিতির এই বিরল অভিজ্ঞতার স্বাক্ষী হয়ে থাকেন ১৫ হাজারের বেশী চলচ্চিত্রপ্রেমী দর্শক। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী উদ্বোধনী ভাষণে এদিন বলেন, “কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব আক্ষরিক অর্থেই হলিউড-বলিউড- টলিউড-টেলিউডের তারকাদের মিলন মেলা”। এই বছর উৎসবের বিশেষ আকর্ষণ হল ইউনাইটেড কিংডম। ১০-১৭ নভেম্বর পর্যন্ত কলকাতাসহ রাজ্যজুড়ে ১২টি অনুষ্ঠান স্থলে মোট ১৪৩টি পূর্ণ দৈর্ঘ্যের ছবি, ৮৭টি স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবি এবং ৫১টি তথ্যচিত্র দেখানো হচ্ছে। গারো, খাসি, চাকমা, মৈথিলী প্রভৃতি আঞ্চলিক ভাষায় নির্মিত ছবি দেখানোর সিদ্ধান্ত নিয়ে নজির সৃষ্টি করল কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব।
০৩/১০/২০১৭
দুর্গা কার্নিভাল - ২০১৭
•  পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উদ্যোগে রেড রোডে আয়োজিত হয়েছিল প্রতিমা শোভাযাত্রা ‘দুর্গা কার্নিভ্যাল’। অনন্য এই শোভাযাত্রায় অংশ নিয়েছিলেন প্রতিমাসহ বিশিষ্ট পুজো উদ্যোক্তারা। প্রতিমা প্রদর্শনের পাশাপাশি বাংলার ঐতিহ্য, সংস্কৃতি, রাজ্যের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্প এমনকি আসন্ন অনুর্ধ্ব-১৭ ফুটবল বিশ্বকাপসহ এ রাজ্যের অন্যান্য আকর্ষণীয় বিষয়বস্তুও প্রদর্শিত হয় এদিনের শোভাযাত্রায়। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী ছাড়াও এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট অতিথিসহ সমাজের সর্বস্তরের সহস্রাধিক মানুষ। প্রথম বছরের মত একইভাবে এই বছরেও দর্শকদের কাছে মনোগ্রাহী হয়ে উঠেছিল এই অনুষ্ঠান। সশরীরে উপস্থিত থাকতে না পারলেও বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অনলাইন এই অনুষ্ঠান উপভোগ করেন বহু মানুষ।
০৫/০৯/২০১৭
শিক্ষক দিবস - ২০১৭
•  শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য রাজ্যের বিশিষ্ট শিক্ষক-শিক্ষিকাদের হাতে ‘শিক্ষা রত্ন’ পুরস্কার তুলে দিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। শিক্ষক দিবস উপলক্ষে এদিন কোলকাতার নজরুল মঞ্চে এই পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। পুরস্কৃত করা হয় শ্রেষ্ঠ স্কুলকেও । শিক্ষক দিবস উপলক্ষে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন এখন থেকে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের আওতায় এলেন রাজ্যের সকল শিক্ষক-শিক্ষিকারা। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী জানান বিগত দিনে রাজ্যের ৪০ লক্ষ ছেলেকে সবুজ সাথী সাইকেল দেওয়া হয়েছে, এবছরে আরও ৩০ লক্ষ দেওয়া হচ্ছে। তিনি আরও জানান যে আর্থিক সঙ্কুলান হলে আগামী আর্থিক বর্ষ থেকে অষ্টম শ্রেণীকে এই প্রকল্পের আওতায় আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।
২৫/০৮/২০১৭
‘অনুরোধের আসর’ - ২০১৭
•  বাংলা সংগীত জগতের প্রবীণ শিল্পীদের সঙ্গে নিয়ে, কোলকাতার নজরুল মঞ্চে নতুন করে শুরু হল ‘অনুরোধের আসর’, সূচনা করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী । বাঙ্গালীর রেডিও-তে গান শোনার স্মৃতি উসকে দিয়ে পুজোর গান-সহ অন্যান্য কালজয়ী বাংলা গানের যাদুস্পর্শ ফিরিয়ে দিতেই এই উদ্যোগ, জানালেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। এদিন মমতা ব্যানার্জ্জীর কথা ও সুরারোপিত ‘মাতৃ মা’ নামে একটি গানের সিডি প্রকাশিত হয়। গান গেয়েছেন লোপামুদ্রা মিত্র, মনোময় ভট্টাচার্য, রূপঙ্কর বাগচী, রাঘব চট্টোপাধ্যায় ও ইন্দ্রনীল সেন। এছাড়াও বিশিষ্ট শিল্পীদের কন্ঠসমৃদ্ধ আরো একটি গানের সিডি এদিন প্রকাশিত হয়।
১৭/০৮/২০১৭
‘জয় হো’ - ২০১৭
•  নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হল কলকাতা পুলিশের বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ‘জয় হো’। এদিন কলকাতা পুলিশের কৃতী ক্রীড়াবিদ এবং খুব ভালো কাজের জন্য পুলিশ আধিকারিকদের পুরস্কৃত করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী । এরপর কলকাতা পুলিশের কর্মী এবং বিশিষ্ট শিল্পীদের নানান সাংস্কৃতিক উপস্থাপনা উপস্থিত দর্শকদের মনোরঞ্জন করে।
১৫/০৮/২০১৭
৭১ তম স্বাধীনতা দিবস
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী ৭১ তম স্বাধীনতা দিবসে সকলকে শুভেচ্ছা জানান। এদিন রাজ্য জুড়ে অত্যন্ত মর্যাদার সঙ্গে পালিত হল। কলকাতার রেড রোডের মূল অনুষ্ঠানে পতাকা উত্তোলন করেন, এরপর কুচকাওয়াজে অংশ নেয় কলকাতা পুলিশ, বিভিন্ন স্কুলের ছাত্রছাত্রী, বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সংগঠন। এছাড়া রাজ্য সরকারের একাধিক দপ্তর বর্ণময় ট্যাবলো বের করে। সেফ লাইফ-সেভ ড্রাইভ, কন্যাশ্রী, সবুজশ্রী, সবুজ-সাথী, খাদ্যসাথী, বিশ্ব বাংলা-সহ বিভিন্ন থিমের আকর্ষণীয় ট্যাবলো উপস্থিত আমন্ত্রিত বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও বিপুল সংখ্যক উৎসাহী দর্শকদের মনোরঞ্জন করে। পুলিশকর্মীদের কাজে বিশেষ পারদর্শিতার জন্য পুলিশমেডেল প্রদান করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। এদিন তারকা খচিত সাংস্কৃতিক উপস্থাপনা ‘একতাই সম্প্রীতি-র ভূয়সী প্রশংসা করেন উপস্থিত সকলে।
২৮/০৭/২০১৭
কন্যাশ্রী উৎসব
•  বিশ্বের দরবারে সেরা নির্বাচিত হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ‘কন্যাশ্রী’ প্রকল্প। এই সাফল্যের অংশীদার হিসাবে হাজার হাজার কন্যাশ্রী এদিন উপস্থিত হয়েছিল কলকাতার নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে, জয়ের আনন্দ ভাগ করে নিতে। এদিন কৃতী কন্যাশ্রী’দের সংবর্ধনা দেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের জন্য এদিন (কন্যাশ্রী) কে-৩ প্রকল্পের সূচনা করেন তিনি। কে-৩ প্রকল্পের অধীনে, ৪৫ শতাংশ নম্বর পাওয়া, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের অ্যাকাউন্টে মাসে ২,৫০০টাকা করে জমা পড়বে, রাজ্য সরকারের তরফ থেকে। এদিনের উজ্জ্বল বর্ণময় অনুষ্ঠানে সামিল হয়েছিলেন সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্ট ব্যক্তিরাও।
২৪/০৭/২০১৭
‘মহানায়ক সম্মান - ২০১৭
•  মহানায়ক উত্তমকুমারের ৩৭তম প্রয়াণ দিবসে নজরুল মঞ্চে অনুষ্ঠিত এক অনুষ্ঠানে ‘মহানায়ক সম্মাননা’ প্রদান করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। প্রবীণ অভিনেত্রী শকুন্তলাবড়ুয়াকে ‘মহানায়িকা’ সম্মান প্রদান করা হয়। এছাড়া চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন শিল্পের সাথে যুক্ত অভিনেতা ও কলাকুশলীদেরও প্রতি বছরের মতো সম্মান জ্ঞাপন করা হয়। ২০১৭ সালের পুরস্কারপ্রাপক–শ্রেষ্ঠচলচ্চিত্র-বিসর্জন,সেরাপরিচালক-অরিন্দম শীল, সেরাঅভিনেতা-প্রসেনজিৎ, বর্ষসেরাঅভিনেত্রী-নুসরৎ,বর্ষসেরা চিত্রগ্রাহক-সৌমিক হালদার সেরাচিত্রনাট্যকার-পদ্মনাভ দাশগুপ্ত,সংগীতে সেরা বিক্রম ঘোষ।
১৫/০৬/২০১৭
কলকাতা পুলিশ ও রাজ্য পুলিশের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান
•  রাজ্য পুলিশের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। আলিপুরের উত্তীর্ণ মঞ্চে, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য পুলিশ ও কলকাতা পুলিশের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে ভূয়সী প্রশংসা ও তাঁদের উৎসাহিত করেন তিনি। কাজে একনিষ্ঠতার জন্য ‘সেবাপদক’, ‘প্রশংসা পদক’ ও ‘নিষ্ঠা পদক’ধারী পুলিশ কর্মীদের পুরস্কারের আর্থিক অঙ্ক বৃদ্ধি করা হবে, ঘোষণা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যে নতুন আরও ১০৮টি নতুন থানা নির্মাণের পরিকাঠামো তৈরি করা হয়েছে, যার মধ্যে ৮০টি থানা মহিলা পরিচালিত এবং ৫টি পুলিশ কমিশনারেট (৬ষ্ঠটির কাজ প্রায় শেষের পথে), জানান তিনি।
২০/০৫/২০১৭
বর্তমান সরকারের ষষ্ঠ বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান
•  রাজ্য সরকারের ছ’বছর পূর্তি উপলক্ষে উন্নয়ন ও সম্প্রীতির বার্তা বহনকারী ২টি ট্যাবলোর যাত্রা শুরু হল নবান্ন থেকে। ট্যাবলোদুটির উদ্বোধন করেন মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জী এবং মাননীয় অর্থ ও শিল্পমন্ত্রী অমিত মিত্র। ‘একতাই সম্প্রীতি’ ও ‘প্রাউড বেঙ্গল’ শীর্ষক এই ট্যাবলো দুটির একটির বিষয় হল লোকপ্রসার প্রকল্প এবং দ্বিতীয়টির বিষয় রাজ্যের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্প। প্রতিটি জেলার মুখ্য কার্যালয় থেকে যাত্রা করবে এ জাতীয় ট্যাবলো এবং ২০ জুন পর্যন্ত চলবে এই ট্যাবলো যাত্রা।
২০/০৫/২০১৭
বঙ্গবিভূষণ ও বঙ্গভূষণ - ২০১৭
•  বাংলার শ্রেষ্ঠ নাগরিক সম্মান ‘বঙ্গ বিভূষণ’ ও ‘বঙ্গ ভূষণ’ পুরষ্কারে ভূষিত করা হল সাহিত্য, শিল্প, চিকিৎসা বিদ্যা, সংস্কৃতি, চলচ্চিত্রসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে কৃতী ব্যক্তিদের। কলকাতার নজরুল মঞ্চে এক বর্ণময় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে এই পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান পালিত হয়। ‘বঙ্গ বিভূষণ’ সম্মান দেওয়া হল কবি নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী, শিল্পী বাপ্পি লাহিড়ী, শিল্পপতি ওয়াই সি দেবেশ্বর, অভিনেতা সৌমিত্র চ্যাটার্জী, ডঃ ধীমান গাঙ্গুলী এবং অবসরপ্রাপ্ত আইপিএস অফিসার অরুণ প্রসাদকে। ‘বঙ্গ ভূষণ’ সম্মান পেলেন ডঃ অভিজিত চৌধুরী, অভিনেতা চপল ভাদুরি, বাংলাদেশের প্রখ্যাত রবীন্দ্র সঙ্গীত শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, সঙ্গীত শিল্পী লক্ষ্মণ দাস বাউল, ফকির ও দরবেশ শিল্পী খিদমৎ ফকির এবং লোকশিল্পী গনত রব্বা।
১৪/০৩/২০১৭
‘কৃষক দিবস’ - ২০১৭
•  ‘কৃষক দিবস’ উপলক্ষে এদিন কলকাতার নজরুল মঞ্চে একটি রাজ্যস্তরের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। এই অনুষ্ঠানে বেশ কয়েকজন কৃষককে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ‘কৃষক সম্মান’ প্রদান করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এছাড়া কৃষিসংক্রান্ত অন্যান্য বিষয়ে বিশেষ অবদানের জন্য ‘কৃষক রত্ন’ পুরস্কারও দেওয়া হয়।
২১/০২/২০১৭
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস - ২০১৭
•  প্রতি বছরের মতো অত্যন্ত মর্যাদার সঙ্গে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হল কোলকাতার দেশপ্রিয় পার্কে। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর আগে ভাষা শহীদ স্মারকে পুষ্প স্তবক প্রদান করেন তিনি কোলকাতার ২১শে উদ্যানে।
২০/০২/২০১৭
‘খেল সম্মান’ - ২০১৭
•  ক্রীড়া জগতের কিংবদন্তীদের সংবর্ধনা দিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এদিন নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে খেলার দুনিয়ার ১৩ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব ‘খেল সম্মান’, ১৫ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব ‘বাংলার গৌরব সম্মান’ এবং ৫ জন কোচ ‘ক্রীড়াগুরু সম্মান’এ ভূষিত হন।
২৭/০১/২০১৭
খাদ্যসাথী দিবস - ২০১৭
•  রেড রোডে কলকাতা পুলিশের একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এদিনের অনুষ্ঠানে তিনি খাদ্যসাথী দিবসের সূচনা করেন।
২৬/০১/২০১৭
৬৮তম সাধারণতন্ত্র দিবস
•  স্ব-মহিমায় উদযাপিত হল ৬৮তম প্রজাতন্ত্র দিবস। কোলকাতার রেড রোডে, মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীসহ রাজ্যের সকল মন্ত্রীর উপস্থিতিতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করলেন মাননীয় রাজ্যপাল। রাজ্য পুলিশ ও সেনাবাহিনীর মার্চপাস্ট দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। বাংলার ঐতিহ্যমণ্ডিত সুসজ্জিত ট্যাবলো বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রায় অন্য মাত্রা আনে এদিনের অনুষ্ঠানে। রাজ্য সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পগুলির মডেল প্রদর্শিত হয় এই শোভাযাত্রায়। এছাড়া রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা স্কুল কলেজের পড়ুয়ারা মার্চপাস্টে অংশ নেয়।
২৫/০১/২০১৭
৪১তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা
•  কলকাতার মিলনমেলা প্রাঙ্গনে শুরু হল আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা, ২০১৭। বিশ্বে সর্বাধিক বইপ্রেমিকদের সমাবেশ ঘটে এই বইমেলায়। মেলা চলবে ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ পর্যন্ত। এ বছরের বইমেলার থিম - কোস্টা রিকা। পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উপস্থিতিতে মেলার উদ্বোধন করলেন কোস্টা রিকার প্রখ্যাত সাহিত্যিক রক্সানা পিন্টো লোপেজ। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট কবি নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী।
২৩/০১/২০১৭
নেতাজীর ১২১ তম জন্মবার্ষিকী
•  উত্তরবঙ্গ সফরের দ্বিতীয় দিনে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী দার্জিলিং ম্যালে, নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২১তম জন্মদিনে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করেন।
২২/০১/২০১৭
‘হিমল তরাই ডুয়ার্স উৎসব’, - ২০১৭
•  কার্শিয়াং-এ ‘হিমল তরাই ডুয়ার্স উৎসব’, ২০১৭-এর পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। তীরন্দাজী, মার্শাল আর্টস, ফুটবল ও ভলিবল-এ উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলার সহস্রাধিক প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেছিল। ৭ দিনব্যাপী ‘উত্তরবঙ্গ উৎসব’-এর সূচনা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী এদিন। উত্তরবঙ্গের ৭ টি জেলা জুড়ে চলবে এই উৎসব। এই অনুষ্ঠানে ‘বঙ্গরত্ন’ পুরস্কার প্রদান করা হয়।
১০/০১/২০১৭
‘বাউল ও লোক উৎসব - ২০১৭
•  এদিন বীরভূমের জয়দেব-কেঁদুলিতে জয়দেব মেলায় বার্ষিক ‘বাউল ও লোক উৎসব’-এর সূচনা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা সহস্রাধিক বাউলের সুর মূর্চ্ছনায় মুখর হয়ে ওঠে এই অনুষ্ঠান। বাংলার ঐতিহ্যমণ্ডিত বাউল ও লোকগানের সাক্ষ্য প্রকৃত অর্থেই বহন করে এই উৎসব। বাউল শিল্পীদের সাধনা ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধার কথা মাথায় রেখে ‘বাউল বিতান’ নির্মানের পরিকল্পনা করা হয়। এছাড়া পর্যটকদেরও আকৃষ্ট করবে এই বাউল বিতান। এদিন ‘বাউল বিতান’এর শিলান্যাস করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, এখন থেকে প্রতি বছর মকর সংক্রান্তির দিন পালিত হবে ‘লোক প্রসার শিল্পী দিবস’, বাংলার লোক সংস্কৃতির একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ এই লোক প্রসার শিল্প।
০৯/০১/২০১৭
মাটি উৎসব – ২০১৭
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী পূর্ব বর্ধমান জেলার ‘মাটি তীর্থ- কৃষি কথা’ প্রাঙ্গণে ‘মাটি উৎসব – ২০১৮’ –র শুভ সূচনা করলেন। মাটির সাথে মানুষের অস্তিত্ব মিলে মিশে আছে, জীবনধারণ থেকে জীবন যাপনে মিশে আছে মাটি! মাটি ছাড়া সভ্যতা অচল। এই ভাবনাকে মাথায় রেখে ২০১৩ সালে শুরু মাটি উৎসব। কৃষি ও কৃষি বিষয়ক বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য ‘কৃষক সম্মান’ প্রদান করেন।
০৩/০১/২০১৭
জঙ্গলমহল উৎসব - ২০১৭
•  বীরভূম জেলা সফরে, আহমদপুরের অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। ‘জঙ্গলমহল উৎসব’-এর উদ্বোধন করেন। এই উৎসব ৩ জানুয়ারী থেকে ১০ জানুয়ারী পর্যন্ত চলবে ঝাড়গ্রামে।
৩০/১২/২০১৬
‘স্বাস্থ্য সম্মান - ২০১৬
•  কলকাতার নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে স্বাস্থ্য পরিষেবায় বিশেষ অবদানের জন্য ১০০জন চিকিৎসক ও নার্সকে ‘স্বাস্থ্য সম্মান’ প্রদান করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
২৩/১২/২০১৬
লোক সংস্কৃতি উৎসব - ২০১৬
•  রবীন্দ্রসদন চত্বরে বিশ্ব বাংলা দ্বিতীয় লোক সংস্কৃতি উৎসবের শুভ সূচনা করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। ১ জানুয়ারি, ২০১৭ পর্যন্ত এই উৎসব চলবে মধুসূদন মঞ্চ চত্বরে।
১৬/১২/২০১৬
ক্রিসমাস ফেষ্টিভ্যাল - ২০১৬
•  কলকাতার অ্যালেন পার্কে পশ্চিমবঙ্গ সরকার আয়োজিত ষষ্ঠ ‘ক্রিসমাস ফেষ্টিভ্যাল’-এর উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। ২ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে এই উৎসব।
১৪/১২/২০১৬
বাংলা সংগীত মেলা ২০১৬
•  কলকাতার নজরুল মঞ্চে ‘বাংলা সংগীত মেলা ২০১৬’-র উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। ১৫ ডিসেম্বর থেকে ২১ শে ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে এই সংগীত মেলা। এবারের উৎসবে অংশ নেবেন পশ্চিমবঙ্গ এবং ভিনরাজ্যসহ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইংল্যান্ড এবং বাংলাদেশের কমপক্ষে ১৮০০ জন গায়ক-গায়িকা এবং ৩০০ জন যন্ত্রশিল্পী। সঙ্গীতে বিশেষ অবদানের জন্য প্রতিবারের মতো এবারও বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বদের সঙ্গীত মহাসম্মান এবং সঙ্গীত সম্মান প্রদান করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
১১/১১/২০১৬
২২তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব
•  শুরু হল ২২তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উপস্থিতিতে কলকাতার নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে এই চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। উপস্থিত ছিলেন মুম্বই চলচ্চিত্র জগতের কিংবদন্তি নায়ক অমিতাভ বচ্চন। এছাড়াও জয়া বচ্চন, শাহরুখ খান, কাজল, পরিনীতি চোপড়া। বাংলা চলচ্চিত্র জগতের জনপ্রিয় তারকাসহ অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিও উপস্থিত ছিলেন এদিনের অনুষ্ঠানে। দেশ বিদেশের বিশিষ্ট অতিথিবর্গ বর্গ এবং চলচ্চিত্র অনুরাগীদের উপস্থিতিতে উজ্জ্বল হয়ে উঠেছিল এদিনের অনুষ্ঠান। কলকাতার ১৩টি প্রেক্ষাগৃহে মোট ১০৫টি স্ক্রিনে সারা বিশ্বের ৬৫টি দেশের মোট ১৫৫টি ছবি দেখানো হচ্ছে এ বারের চলচ্চিত্র উৎসবে। উদ্বোধনী ছবি হিসাবে দেখানো হল ‘দ্য সং অফ লাইফ’ নামের একটি বাংলা ছবি। চলচ্চিত্র উৎসবে এই প্রথম উদ্বোধনী ছবি হিসাবে বাংলা ছবিকে নির্বাচিত করা হল।
১১/১১/২০১৬
নিউটাউনে মাদারস ওয়াক্স মিউজিয়ম ফেজ-২
•  নিউটাউনে মাদারস ওয়াক্স মিউজিয়ম ফেজ-২ এর উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। ২২তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী মঞ্চ থেকে রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে এটি উদ্বোধন করেন তিনি। আজ থেকে ঠিক ২ বছর আগে, ২০তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী মঞ্চ থেকে একইভাবে তিনি মাদারস ওয়াক্স মিউজিয়ামের উদ্বোধন করেছিলেন। মাত্র ২ বছরে প্রায় ৩.২৫ লক্ষ দর্শকের সমাগমে এক গুরুত্বপূর্ণ দ্রষ্টব্য স্থান হয়ে উঠেছে এই মাদারস ওয়াক্স মিউজিয়ম।
০৮/১১/২০১৬
‘বিশ্ব বাংলা শারদ সম্মান – ২০১৬’
•  ‘বিশ্ব বাংলা শারদ সম্মান – ২০১৬’ সেরা দুর্গাপুজোর উদ্যোক্তাদের পুরস্কৃত করা হল নজরুল মঞ্চে। এদিন নির্বাচিত ক্লাবগুলির প্রতিনিধিদের হাতে পুরস্কার তুলে দিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। বিদেশে আয়োজিত দুর্গাপুজোগুলিকেও এ বছর এই পুরস্কারের আওতায় আনা হয়েছে।
২১/১০/২০১৬
পুলিশ কমেমোরেশন ডে - ২০১৬
•  পুলিশ কমেমোরেশন ডে উপলক্ষে রেড রোড ও মেয়ো রোডের মোড়ে পুলিশ স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ্য দিয়ে শ্রদ্ধা জানালেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। কর্তব্য পালন করতে গিয়ে মৃত পুলিশ - কর্মীদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ও কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।
১৪/১০/২০১৬
দুর্গা কার্নিভাল - ২০১৬
•  শারদোৎসবের শেষে বাংলার উৎসবে তালিকাভুক্ত হল অভিনব দুর্গা কার্নিভাল। সুসজ্জিত ট্যাবলোসহ প্রতিমা নিরঞ্জনের শোভাযাত্রা, এই কার্নিভালের মুখ্য আকর্ষণ। বিশ্বের পর্যটন মানচিত্রে রাজ্যের গুরুত্ব বৃদ্ধি করতে এবং বিশ্ব বাংলা ব্র্যান্ডকে তুলে ধরতে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর এই অভিনব উদ্যোগ। পশ্চিমবঙ্গ পর্যটন দফতরের সহযোগিতায় তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের উদ্যোগে আয়োজিত এই শোভাযাত্রায় অংশ নিয়েছিল বিশ্ব বাংলা সম্মানপ্রাপ্ত ৩৯টি প্রতিমা। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী ছাড়াও এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট অতিথি অভ্যাগতরা। বহু বিদেশী পর্যটকসহ লক্ষাধিক মানুষের উপস্থিতিতে এক অভিনব শোভাযাত্রার সাক্ষী থাকল কলকাতা।
১৯/০৮/২০১৬
‘জয় হে’ - ২০১৬
•  নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে কলকাতা পুলিশ আয়োজিত ‘জয় হে’ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
০১/০৮/২০১৬
প্রগতির পথে - ২০১৬
•  নেতাজী ইনডোর স্টেডিয়ামে সংখ্যালঘু বিষয়ক দফতর আয়োজিত ‘প্রগতির পথে’- শীর্ষক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
২৩/০৭/২০১৬
মহানায়ক উত্তমকুমার সম্মান-২০১৬
•  মহানায়ক উত্তমকুমারের ৩৬ তম মৃত্যু বার্ষিকীর প্রাক্কালে কলকাতার নজরুল মঞ্চে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল তথ্য সংস্কৃতি বিভাগ। প্রবীণ সঙ্গীত পরিচালক বাপ্পি লাহিড়ীকে ‘মহানায়ক সম্মান-২০১৬’ প্রদান করা হয় এদিনের অনুষ্ঠানে। যৌথভাবে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র হিসাবে মনোনীত হয় ‘বেলাশেষে’ এবং ‘শঙ্খচিল’। ‘সিনেমাওয়ালা’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য প্রবীণ অভিনেতা পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়-কে বিশেষ চলচ্চিত্র সম্মান প্রদান করা হয়।এছাড়া অভিনেতা যীশু সেনগুপ্তকে ‘ব্যোমকেশ’ ও ‘রাজকাহিনী’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য বিশেষ চলচ্চিত্র সম্মান দেওয়া হয়।। শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর সম্মান দেওয়া হয় সোহিনী সরকারকে। ‘বর্ষসেরা চলচ্চিত্র সম্মান’ পেলেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। প্রযোজক সংস্থা হিসাবে ভেঙ্কটেশ ফিল্মস পেল ‘বর্ষসেরা চলচ্চিত্র সম্মান’। পরিচালক গৌতম ঘোষ ও কৌশিক গাঙ্গুলী পান শ্রেষ্ঠ পরিচালকের সম্মান।
২১/০২/২০১৬
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন
•  দেশপ্রিয় পার্কের ভাষা মঞ্চে পালিত হল আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে একুশের ভাষা শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এদিনের অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন হৈমন্তী শুক্লা, প্রতুল মুখোপাধ্যায়, শ্রীরাধা বন্দ্যোপাধ্যায়, ইন্দ্রানী সেন, স্বাগতালক্ষ্মী দাশগুপ্ত, নচিকেতা, ইন্দ্রনীল সেন, সৌমিত্র রায় প্রমুখ।
১৯/০২/২০১৬
‘ভাষা শহিদ স্মারক’ উদ্বোধন
•  ১৯৫২ সালের ২১ শে ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে ভাষা আন্দোলনের শহিদদের সম্মান জানাতে নির্মিত হয়েছিল ভাষা শহিদ স্মারক। বিড়লা প্ল্যানেটোরিয়ামের বিপরীতে একুশে উদ্যানে স্মারকটির উদ্বোধন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। ১৯৯৯ সালে ২১ শে ফেব্রুয়ারি দিনটিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেয় ইউনেস্কো(UNESCO)।
২৬/০১/২০১৬
৬৭তম সাধারণতন্ত্র দিবস
•  ৬৭তম সাধারণতন্ত্র দিবসে রেড রোডে জাতীয় পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন মাননীয় রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন দফতরের মন্ত্রীসহ বহু বিশিষ্ট ব্যক্তি। সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন জানালেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। কুচকাওয়াজ ছাড়াও এদিনের শোভাযাত্রার অন্যতম আকর্ষণ ছিল রাজ্যের সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্য বহনকারী বর্ণময় ট্যাবলোগুলি। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা ছাত্র-ছাত্রীরা এ দিনের শোভাযাত্রায় অংশ নেয়।
২৫/০১/২০১৬
৪০তম ‘আন্তর্জাতিক কলকাতা বই মেলা’
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উপস্থিতিতে মিলন মেলা প্রাঙ্গণে শুরু হল ৪০ তম ‘আন্তর্জাতিক কলকাতা বই মেলা’। বইমেলার এ বছরের থিম বলিভিয়া। উপস্থিত ছিলেন বলিভিয়ার প্রথিতযশা সাহিত্যিক ম্যাগেলা বাওদোইন। ভিয়েতনামও এ বছর প্রথম যুক্ত হল কলকাতা বই মেলার সঙ্গে। বিশিষ্ট অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন প্রবীণ কবি নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী এবং সাহিত্যিক নিমাই ভট্টাচার্য। মেলা চলবে ৭ ফেব্রুয়ারি,২০১৬ পর্যন্ত।
২৩/০১/২০১৬
নেতাজীর ১২০ তম জন্মবার্ষিকী
•  নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২০তম জন্মদিবসে দার্জিলিং ম্যালে ‘দেশনায়ক’-এর স্মৃতির উদ্দেশ্যে আয়োজিত সরকারি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। উপস্থিত ছিলেন আবাসন ও যুবকল্যাণ মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব সহ অন্যান্য আধিকারিকরা। নেতাজীর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ম্যালে উপস্থিত ছিলেন বিপুল সংখ্যক সাধারণ মানুষ।
২২/০১/২০১৬
শেরপা উন্নয়ন পর্ষদের প্রথম বর্ষ পূর্তি
•  দার্জিলিং-এর সিংমারির কাছে নর্থপয়েন্টে শেরপা উন্নয়ন পর্ষদের প্রথম বর্ষ পূর্তির অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। এদিনের অনুষ্ঠানে ‘হিমল- তরাই- ডুয়ার্স ক্রীড়া উৎসব’ –এর পুরস্কার প্রদান করেন তিনি। পুরস্কার বিতরণের পর ছিল বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এদিনই বিকেলে দার্জিলিং ম্যালে অনুষ্ঠিত ‘উত্তর বাংলা উৎসব’-এ যোগ দেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
১৯/০১/২০১৬
মাটি তীর্থ কৃষি কথা ও মাটি উৎসব - ২০১৬
•  ‘মাটি উৎসব ২০১৬’–এর সূচনা হল বর্ধমানের সাধনপুরে। উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এছাড়া মাটি এবং কৃষি সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য সরবরাহ, গবেষণা ও পরীক্ষা নিরীক্ষার স্থায়ী ঠিকানা ‘মাটি তীর্থ কৃষি কথা’–এর উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। ২৫ জানুয়ারি, ২০১৬ পর্যন্ত চলবে মাটি উৎসব।
১৮/০১/২০১৬
বাউল ও লোক উৎসব - ২০১৬
•  ‘বাউল ও লোক উৎসব’-এর শুভ সূচনা করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। একহাজার বাউল শিল্পী সমবেত সঙ্গীত পরিবেশন করেন এই অনুষ্ঠানে। বাংলার এই লোক ঐতিহ্যের সংরক্ষণ ও প্রসারের উদ্দেশ্যে কেন্দুলিতে ‘জয়দেব বাউল অ্যাকাডেমি’র শিলান্যাস করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
১৩/০১/২০১৬
২০তম যাত্রা উৎসব - ২০১৬
•  ‘বাংলার জীবনে যাত্রা’ – এই নাম নিয়ে বারাসতের কাছারি ময়দানে শুরু হল ২০তম যাত্রা উৎসব। এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। কাছারি ময়দান ছাড়াও বাগবাজারের ফণীভূষণ বিদ্যা বিনোদ যাত্রা মঞ্চে ৩২ দিন ধরে চলবে এই যাত্রা উৎসব। নির্মল মুখার্জী, জয়শ্রী মুখার্জীসহ ১৬ জন বিশিষ্ট যাত্রা শিল্পীকে সম্বর্ধনা এবং ৩১১ জন দুঃস্থ যাত্রা শিল্পীকে আর্থিক অনুদান দেওয়া হয় এই অনুষ্ঠানে। এ বছর ‘যাত্রা সম্রাজ্ঞী বীণা দাশগুপ্ত’ নামাঙ্কিত পুরস্কার পেলেন মীনাক্ষী দে।
১২/০১/২০১৬
মিলন উৎসব ২০১৬’তে গুলাম আলিকে সম্বর্ধনা
•  নেতাজী ইন্ডোরে স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনে ‘মিলন উৎসব ২০১৬’-র মঞ্চে কিংবদন্তী গজল গায়ক গুলাম আলিকে সংবর্ধনা জ্ঞাপন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। তিনি বলেন, সঙ্গীতের কোনও সীমা নেই, দেশ নেই, সঙ্গীত সারা পৃথিবীর। এদিন অনবদ্য গজল পরিবেশনের ভিতর দিয়ে শ্রোতাদের মন্ত্রমুগ্ধ করেন গুলাম আলি।
১০/০১/২০১৬
বিবেক চেতনা উৎসব - ২০১৬
•  ১৫৪ তম বর্ষে পদার্পন করলেন যুগনায়ক স্বামী বিবেকানন্দ। তাঁর আদর্শ প্রচারের উদ্দেশ্যে শুরু হল ‘বিবেক চেতনা উৎসব’। আগামী ২ দিন ধরে সারা রাজ্যে পালিত হবে এই উৎসব।
০৯/০১/২০১৬
‘ বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিট-২০১৬’-এর সমাপ্তি অনুষ্ঠান
•  দু দিনের আন্তর্জাতিক স্তরের বাণিজ্য সম্মেলন থেকে ২ কোটি, ৫০ লক্ষ, ১০৪ কোটি টাকার নতুন বিনিয়োগ প্রস্তাব এল রাজ্যে। ‘ বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিট-২০১৬’-এর শেষ দিনে তাঁর ভাষণে এ কথা জানালেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
০৮/০১/২০১৬
‘বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিট-২০১৬’- এর উদ্বোধন
•  কলকাতার মিলন মেলা প্রাঙ্গনে ‘বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিট-২০১৬’ এর শুভ সূচনা করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বর্ণময় উপস্থিতি ছিল ভূটানের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেরিং টোবগে, ব্রিটেনের মাননীয়া শ্রমমন্ত্রী প্রীতি প্যাটেল ভূটানের মাননীয় অর্থমন্ত্রী নরবু ওয়াংচুক, বাংলাদেশের মাননীয় বাণিজ্য মন্ত্রী তোফাই আহমেদ। এছাড়া, কেন্দ্রীয় অর্থ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী অরুণ জেটলি, জাহাজ ও সড়ক পরিবহণ মন্ত্রী নীতিন গড়করি, কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভু, কেন্দ্রীয় কয়লা মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল এবং দিল্লীর মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালও উপস্থিত ছিলেন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। বিশিষ্ট শিল্পপতিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মুকেশ আম্বানি, ডঃ সুভাষ চন্দ্র, নিরঞ্জন হিরনআন্দানি, সজ্জন জিন্দল, রাকেশ ভারতী মিত্তল, মোহনদাস পাই, ওয়াই সি দেবেশ্বর, সঞ্জীব গোয়েঙ্কা, হর্ষবর্ধন নেওটিয়া সহ দেশ-বিদেশের উদ্যোগপতিরা। এই বাণিজ্য সম্মেলনে ২৫ টি দেশের রাষ্ট্রদূত, বণিক সভার সদস্য সিআইআই, ফিকি, অ্যাসোচেম-এর প্রতিনিধি সহ বাণিজ্যবিশ্বের বিভিন্ন ক্ষেত্রের স্বনামধন্য ব্যক্তিত্বরা অংশ নেন।
২৪/১২/২০১৫
বিশ্ব বাংলা লোক সংস্কৃতি উৎসব - ২০১৫
•  ‘বিশ্ব বাংলা লোক সংস্কৃতি উৎসবে’র শুভ সূচনা করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। কলকাতার ‘লাল দীঘি’ এবং ‘প্রিন্সেপ ঘাট’ এই দুটি জায়গায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে এই উৎসব, চলবে ১ জানুয়ারি, ২০১৬ পর্যন্ত । সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের জন্য লালদীঘির মাঝখানে একটি বিশেষ ভাসমান মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে।
১৬/১২/২০১৫
কলকাতা ক্রিসমাস ফেস্টিভ্যাল - ২০১৫
•  পার্ক স্ট্রিটের অ্যালান পার্কে পঞ্চম ‘কলকাতা ক্রিসমাস ফেস্টিভ্যাল’-এর উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। উপস্থিত ছিলেন আর্চবিশপ থমাস ডি’সুজা এবং বিশপ অশোক বিশ্বাস, পর্যটন মন্ত্রী ব্রাত্য বসু।
১৪/১২/২০১৫
বাংলা সঙ্গীত মেলা - ২০১৫
•  নজরুল মঞ্চে ‘বাংলা সঙ্গীত মেলা ২০১৫-১৬’-র উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। প্রতি বছরের মতো এবারও সঙ্গীত জগতের নক্ষত্রদের ‘সঙ্গীত সম্মান’ দিয়ে ভূষিত করেন তিনি।
০৪/১২/২০১৫
টেলি অ্যাকাডেমি পুরস্কার - ২০১৫
•  নজরুল মঞ্চে তৃতীয় টেলি অ্যাকাডেমি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। বর্নাঢ্য অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে টেলিভিশনে বিশেষ অবদানের জন্য অভিনেতা-অভিনেত্রীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন তিনি।
২৬/১১/২০১৫
বিশ্ব বাংলা শারদ সম্মান - ২০১৫
•  কেবলমাত্র কলকাতা বা পশ্চিমবঙ্গই নয় বিশ্ব জুড়ে সেরা শারদোৎসব কমিটিদের ‘বিশ্ব বাংলা শারদ সম্মান’-২০১৫ জ্ঞাপন করল রাজ্য সরকার। নজরুল মঞ্চে আয়োজিত এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে নির্বাচিত পুজো কমিটিগুলির প্রতিনিধিদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
১৪/১১/২০১৫
২১তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব - ২০১৫
•  ২১তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সূচনা হল নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী ও হিন্দি চলচ্চিত্রের কিংবদন্তী ব্যক্তিত্ব অমিতাভ বচ্চন। এছাড়াও মঞ্চ আলোকিত করেছিলেন জয়া বচ্চন, শর্মিলা ঠাকুর, মৌসুমী চ্যাটার্জ্জী, বিদ্যা বালানসহ বিনোদন ও সংস্কৃতি জগতের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।
১৯/০৯/২০১৫
কলকাতা পুলিশের সম্মাননা জ্ঞাপন অনুষ্ঠান - ২০১৫
•  নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে কলকাতা পুলিশের সম্মাননা জ্ঞাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
০৪/০৯/২০১৫
শিক্ষা রত্ন পুরস্কার - ২০১৫
•  • শিক্ষক দিবসের প্রাক্কালে, রাজ্যের কৃতী শিক্ষকদের ‘শিক্ষা রত্ন’ সম্মানে ভূষিত করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এই অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে রাজ্য সরকারের আরও একটি মহৎ কর্মসূচির সূচনা করেন তিনি। প্রকল্পটির নাম ‘মুক্তির আলো’। নানান সামাজিক অত্যাচারের শিকার যে সকল নারী, তাঁদের মুক্তির আলো দেখানো এবং সমাজের মূল স্রোতে ফেরানোই এই প্রকল্পের মুখ্য উদ্দেশ্য।
১৫/০৮/২০১৫
৬৯তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন - ২০১৫
•  রাজ্যজুড়ে মহাসমারোহে পালিত হল ৬৯তম স্বাধীনতা দিবস। কলকাতার রেড রোডে ত্রিবর্ণ রঞ্জিত জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। প্রত্যেকবারের মতো এবারও কুচকাওয়াজে অংশ নিয়েছিল কলকাতা ও রাজ্য পুলিশের সশস্ত্র বাহিনীর জওয়ানরা।
১৪/০৮/২০১৫
কন্যাশ্রী দিবস - ২০১৫
•  নথীভুক্ত ২৭ লক্ষ ছাত্রীদের অ্যাকাউন্টে নিমেষের মধ্যে টাকা পৌঁছে দিয়ে নজির সৃষ্টি করল মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প ‘কন্যাশ্রী’।ঐতিহাসিক এই প্রকল্পের তৃতীয় বর্ষপূর্তিতে, কলকাতার নজরুল মঞ্চে রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে ছাত্রীদের অ্যাকাউন্টে টাকা পৌঁছে দেওয়ারএই কাজটি সম্পন্ন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
২৪/০৭/২০১৫
উত্তমকুমার স্মরণে - ২০১৫
•  প্রয়াত কিংবদন্তী নায়ক উত্তমকুমারের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। রাজ্য সরকারের উদ্যোগে কলকাতার নজরুল মঞ্চে আয়োজিত এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে তিনি চলচ্চিত্র জগতের কৃতীদের পুরস্কার প্রদান করেন।
২৮/০৫/২০১৫
‘তারানা ই হিন্দি’ সম্মান - ২০১৫
•  ‘সারে জাঁহা সে আচ্ছা হিন্দুস্তাঁ হামারা’- র স্রষ্টা কবি মহম্মদ ইকবালকে মরণোত্তর ‘ তারানা ই হিন্দি’ সম্মানে ভূষিত করল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। কলকাতার নজরুল মঞ্চে এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে ইকবালের পৌত্র অধ্যাপক ডঃ ওয়ালিদ ইকবালের হাতে স্মারক তুলে দেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
২৬/০৫/২০১৫
বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৬তম জন্মজয়ন্তী
•  মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উপস্থিতিতে নজরুল মঞ্চে পালিত হল বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৬ তম জন্মজয়ন্তী। বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কবিকে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ করা হয়। প্রতিবছরের মতো এদিন বিভিন্ন ক্ষেত্রের কৃতী ব্যক্তিত্বদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
২০/০৫/২০১৫
বঙ্গবিভূষণ ও বঙ্গভূষণ - ২০১৫
•  রাজ্যের শ্রেষ্ঠ সম্মান ‘বঙ্গবিভূষণ’-এ ভূষিত হলেন শিল্প, সংস্কৃতি ও ক্রীড়া জগতের ৩৫জন বিশিষ্ট ব্যক্তি। এদিন নজরুল মঞ্চে মাননীয় রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠির উপস্থিতিতে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী ‘বঙ্গবিভূষণ’ ও ‘বঙ্গভূষণ’ পুরস্কার দিয়ে সম্মানিত করলেন দুই বাংলার সেরাদের। ‘বঙ্গবিভূষণ’ পুরস্কার প্রাপকেরা হলেন ক্রীড়া জগতের লিয়েন্ডার পেজ, প্রাক্তন ফুটবল খেলোয়াড় নইমুদ্দিন।,বিশিষ্ট উদ্যোগপতি সত্যব্রত গাঙ্গুলি ও সঞ্জীব গোয়েঙ্কা। সঙ্গীত জগতের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব গিরিজা দেবী, কবীর সুমন, রশিদ খান। সেতার শিল্পী মণিলাল নাগ, বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত, বিশিষ্ট তবলিয়া পণ্ডিত শঙ্কর ঘোষ। সাহিত্যিক দিব্যেন্দু পালিত, সমাজসেবী লিয়াং সং তামাং এবং চলচ্চিত্র প্রযোজনা সংস্থা ভেঙ্কটেশ ফিল্মস এবং প্রাক্তন জেনারেল শঙ্কর রায়চৌধুরি। এদিন মরণোত্তর ‘বঙ্গবিভূষণ’ সম্মান দেওয়া হয় বাংলাদেশের প্রখ্যাত নজরুলগীতি শিল্পী ফিরোজা বেগমকে। এছাড়াও সমাজ সেবামূলক প্রতিষ্ঠান ভারত সেবাশ্রম সংঘ ও রামকৃষ্ণ মিশনকে ‘বঙ্গবিভূষণ’ সম্মান দেওয়া হয়। ‘বঙ্গভূষণ’ সম্মান প্রাপকদের তালিকায় ছিলেন চিত্র পরিচালক সুজিত সরকার, কৌশিক গাঙ্গুলি, সরোদিয়া তেজেন্দ্র নারায়ণ মজুমদার, কার্তিক দাস বাউল, জনপ্রিয় অভিনেতা দেব, বডি বিল্ডার তুষার শীল, ক্রিকেটার মনোজ তিওয়ারি, লক্ষ্মী রতন শুক্লা, দাবাড়ু সূর্যশেখর গাঙ্গুলি, চিকিৎসক ডঃ ত্রিদিব ব্যানার্জী, ডঃ সুব্রত মৈত্র, কবি সুবোধ সরকার, সমাজসেবী নিমা ওয়াংড়ি শেরপা এবং কল্যাণব্রত চক্রবর্তী। সমাজ সেবামূলক প্রতিষ্ঠান আল আমিন মিশনকেও সম্মানিত করা হয় ‘বঙ্গভূষণ’ সম্মানে। প্রবীণ সাহিত্যিক রমাপদ চৌধুরি এবং বর্ষীয়ান বডি বিল্ডার শতায়ু মনোহর আইচকে ‘বঙ্গভূষণ’ সম্মান প্রদান করা হয়।
০৯/০৫/২০১৫
কবিগুরুর ১৫৫তম জন্মজয়ন্তী
•  কবিগুরুর ১৫৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে পক্ষব্যাপী অনুষ্ঠান উদযাপন করবে রাজ্য। ক্যাথিড্রাল রোডে এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
১৪/০৩/২০১৫
কৃষক দিবস - ২০১৫
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উদ্যোগে রাজ্যের সকল ব্লকে পালিত হল কৃষক দিবস। কৃষিক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য কৃষকদের ‘কৃষক রত্ন’ প্রদান করা হয় এদিন।
০৪/০৩/২০১৫
বসন্ত সন্ধ্যা - ২০১৫
•  তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরের সহযোগিতায় কলকাতা ইমপ্রুভমেন্ট ট্রাস্ট এবং কলকাতা মেট্রোপলিটন ডেভেলপমেণ্ট অথরিটির যৌথ উদ্যোগে নজরুল মঞ্চে আয়োজন করা হয়েছিল বসন্তসন্ধ্যা। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
০৩/০৩/২০১৫
চারু কলা উৎসব - ২০১৫
•  ২৭ শে ফেব্রুয়ারি থেকে তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তর এবং পশ্চিমবঙ্গ চারু কলা আকাদেমির যৌথ উদ্যোগে নন্দন চত্বরে চলছে চারু কলা উৎসব। এদিন রবীন্দ্রসদনে চারু কলা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বদের শিল্পী সম্মান প্রদান করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
১৩/০২/২০১৫
বাংলা সঙ্গীত মেলা - ২০১৫
•  নজরুল মঞ্চে বাংলা সঙ্গীত মেলার উদ্বোধন করলেন মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। ১৩ থেকে ১৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত কলকাতার নয়টি স্থানে অনুষ্ঠিত হবে এই মেলা, অংশগ্রহণ করবেন বাংলার বিভিন্ন প্রান্তের শিল্পীরা। সঙ্গীত মেলার উদ্বোধনের পাশাপাশি মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী এদিন বিশিষ্ট শিল্পীদের ‘সঙ্গীত মহাসম্মান’ ও ‘সঙ্গীত সম্মান’ প্রদান করেন।
০২/০২/২০১৫
টেলি আকাদেমি সম্মান - ২০১৫
•  নজরুল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হল দ্বিতীয় টেলি আকাদেমি সম্মান প্রদান অনুষ্ঠান। এদিন শিল্পী, নির্দেশক, প্রযোজক এবং কলাকুশলীদের সম্মান প্রদান করা হয়। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী টেলিভিশন শিল্পে সারা জীবনের অবদানের জন্য অভিনেতা মনু মুখোপাধ্যায়, দীপঙ্কর দে এবং অভিনেত্রী মিতা চট্টোপাধ্যায়ের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। পুরস্কার প্রদানের পর এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে অংশ নেন টেলিউডের শিল্পীরা।
২৮/০১/২০১৫
‘মাটি উৎসব’ - ২০১৫
•  এই নিয়ে তিন বছরে পা দিল ‘মাটি উৎসব’। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উদ্যোগে, ২০১৩ সাল থেকেই পালিত হচ্ছে এই ‘মাটি উৎসব’। বর্ধমানের পানাগড়ের বিরুডিহায় এই উৎসবের সূচনা করলেন তিনি। বাংলার সংস্কৃতি, ঐতিহ্য এবং সামাজিক ও অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির মূলে রয়েছে ‘মাটি’, এই বার্তাই তুলে ধরা হয় মাটি উৎসবে।
২৭/০১/২০১৫
৩৯তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বই মেলা
•  মিলন মেলা প্রাঙ্গণের এসবিআই অডিটোরিয়ামে ৩৯তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বই মেলার সূচনা করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী এবং বৃটিশ সাংবাদিক অনিতা আনন্দ। কলকাতা বইমেলার এবারের থিম ইংল্যান্ড। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বৃটিশ কাউন্সিলের ডিরেক্টর রব লাইন্স এবং সাহিত্যিক নিমাই ভট্টাচার্য।
২৬/০১/২০১৫
৬৬ তম সাধারণতন্ত্র দিবস
•  ৬৬ তম সাধারণতন্ত্র দিবসে কলকাতার রেড রোডে আয়োজিত এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন পশ্চিমবঙ্গের মাননীয় রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী । এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী রাজ্যবাসীকে সংবিধানের সার্বভৌমত্ব, ধর্মনিরপেক্ষতা, সমাজতন্ত্র এবং গণতন্ত্রের কথা স্মরণ করান ।
২৩/০১/২০১৫
নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর ১১৯ তম জন্মদিবস
•  রাজ্যজুড়ে উদযাপিত হল দেশনায়ক নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর ১১৯ তম জন্মদিবস। দার্জিলিং-এ রাজ্যসরকারের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এই বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে যোগদান করেন শেরপা এবং লেপচা সম্প্রদায়ের মানুষ।
২২/০১/২০১৫
তামাং উন্নয়ন ও সাংস্কৃতিক পর্ষদের প্রথম বার্ষিক অনুষ্ঠান - ২০১৫
•  তামাং উন্নয়ন ও সাংস্কৃতিক পর্ষদের প্রথম বার্ষিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী । গত বছর জানুয়ারি মাসে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর পরিকল্পনায় তৈরি হয় এই পর্ষদ। নতুন বছরকে বরন করতে এদিন পালিত হয় এক বর্ণময় অনুষ্ঠান ‘লোচার’। তামাং সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী নৃত্যশৈলী ‘দুম্ফু’ পরিবাশিত হয় এই অনুষ্ঠানে।
২১/০১/২০১৫
‘হিমল তরাই ডুয়ার্স ক্রীড়া উৎসব’ - ২০১৫
•   ‘হিমল তরাই ডুয়ার্স ক্রীড়া উৎসব’-এর সমাপ্তি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। রাজ্যসরকার আয়োজিত এই উৎসবে ফুটবল, মার্শল আর্ট, তীরন্দাজি এবং ভলিবলে অংশ নেন পাহাড় এবং ডুয়ার্সের ৭০০০ জন ক্রীড়াবিদ। ‘ হিমালয়ান মাউন্টেনিয়ারিং ইন্সটিউট’ -এর মহিলা পর্বতারোহীদের জন্য একটি হোস্টেলের উদ্বোধন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
০২/০১/২০১৫
১৯তম যাত্রা উৎসব - ২০১৫
•  উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতের কাছারি ময়দানে ১৯তম যাত্রা উৎসবের সূচনা করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
১৭/১১/২০১৪
২০তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সমাপ্তি অনুষ্ঠান
•  নজরুল মঞ্চে এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে সমাপ্ত হল ২০তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। অস্ট্রেলীয় চিত্রপরিচালক পল কক্সসহ মাননীয় অতিথিদের তালিকায় ছিলেন মুম্বাইয়ের জনপ্রিয় চিত্রপরিচালক ফারহা খান, প্রখ্যাত চিত্র ও নাট্যব্যক্তিত্ব অমল পালেকর, বর্ষীয়ান অভিনেত্রী মাধবী মুখার্জী এবং অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। চলচ্চিত্র উৎসবের ইতিহাসে এই প্রথম সংযোজিত হল প্রতিযোগিতা বিভাগ। বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রকে ‘গোল্ডেন রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার’ স্মারক দিয়ে পুরস্কৃত করা হয়।
১১/১১/২০১৪
আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসের উদ্বোধন - ২০১৪
•  আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসের উদ্বোধন করলেন মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
১০/১১/২০১৪
২০তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধন - ২০১৪
•  শুরু হল ২০তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উপস্থিতিতে নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে এই উৎসবের সূচনা করলেন কিংবদন্তি অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জনপ্রিয় অভিনেতা শাহরুখ খান। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন পরিচালক পল কক্স। এছাড়াও অনুষ্ঠান মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন জয়া বচ্চন, তনুজা, ঐশ্বর্য রাই বচ্চন, অভিষেক বচ্চন এবং ইরফান খান। চলচ্চিত্র উৎসব চলবে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত। ৬০টি দেশের মোট ১৪০টি ছবি দেখানো হবে। ১৩টি বাংলা ছবিসহ ৩১টি ভারতীয় ছবি দেখা যাবে এই চলচ্চিত্র উৎসবে। এই প্রথম চলচ্চিত্র উৎসবের প্রতিযোগিতা বিভাগে বিশ্বের সেরা মহিলা পরিচালককে ‘গোল্ডেন রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার স্মারক’ দিয়ে পুরস্কৃত করা হবে। বাছাই করা ১৫টি ছবির মধ্যে হবে এই প্রতিযোগিতা। উদ্বোধনী ছবি হিসাবে দেখানো হল আলেসিয়া স্কার্সো-র পরিচালনায় ‘ইতালীয় বরোক্ক’।
১০/১১/২০১৪
মাদার্স ওয়াক্স মিউজিয়াম উদ্বোধন - ২০১৪
•  নভেম্বরের ১১ তারিখ থেকে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হচ্ছে রাজারহাট নিউটাউনে গড়ে ওঠা বহুপ্রতীক্ষীত মাদার্স ওয়াক্স মিউজিয়ামের দরজা। এ দিন নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনের মঞ্চ থেকে রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে মিউজিয়ামটির উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
০৭/১১/২০১৪
বিশ্ববাংলা শারদ সম্মান প্রদান - ২০১৪
•  নজরুল মঞ্চে বিশ্ববাংলা শারদ সম্মান প্রদান করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ, কলকাতা পুরনিগম এবং কলকাতা পুলিশের যৌথ উদ্যোগে এই পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।
২২/০৯/২০১৪
‘আগমনী’ - ২০১৪
•  আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে এই প্রথম এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করল রাজ্যসরকার। নজরুল মঞ্চে আয়োজিত বর্ণাঢ্য এই ‘আগমনী’ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। অল ইন্ডিয়া রেডিওয় সম্প্রচারিত প্রথম ‘মহিষাসুরমর্দিনী’-র তিন কিংবদন্তী শিল্পীকে সম্মাননা জ্ঞাপন করেন তিনি। এই অনুষ্ঠানে মঞ্চস্থ হয় ‘মহিষাসুরমর্দ্দিনী’ নৃত্যনাট্য।
০৫/০৯/২০১৪
শিক্ষক দিবস উদযাপন - ২০১৪
•  শিক্ষক দিবসের দিন রাজ্যের বিশিষ্ট শিক্ষক এবং সেরা স্কুলগুলিকে সম্মান জ্ঞাপন করল রাজ্যসরকার। নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে স্কুল শিক্ষা দপ্তর আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ১০০ জন শিক্ষককে শিক্ষা রত্ন সম্মানে ভূষিত করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। অনুষ্ঠানে রাজ্যের ৪২ টি স্কুলকে সেরা স্কুলের পুরষ্কারও প্রদান করেন তিনি।
১৫/০৮/২০১৪
৬৮তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন
•  আটষট্টিতম স্বাধীনতা দিবসে রাজ্যবাসীকে অভিনন্দন জানালেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রেড রোডে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পর কলকাতা পুলিসের কাছ থেকে গার্ড অফ অনার গ্রহণ করেন তিনি । দেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য তুলে ধরতে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পর্যটন দপ্তর , তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তর, মহিলা ও সমাজ কল্যাণ দপ্তর এবং শ্রম দপ্তরের পক্ষ থেকে বর্ণময় ট্যাবলোর পাশাপাশি কন্যাশ্রী প্রকল্পের একটি নজরকাড়া ট্যাবলোও অনুষ্ঠানে অংশ নেয়। স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে এই প্রথমবার কাজে বিশেষ অবদানের জন্য পুলিশ আধিকারিকদের পদক প্রদান করেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যসরকারের পঞ্চায়েত এবং গ্রামোন্নয়ন , নারী ও শিশু কল্যাণ, ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দপ্তরকে উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য স্বীকৃতি প্রদান করা হয়।
১৪/০৮/২০১৪
কন্যাশ্রী দিবস উদযাপন
•  রাজ্যের প্রত্যেক ব্লকে উদযাপিত হল প্রথম কন্যাশ্রী দিবস। কন্যাশ্রী দিবস উপলক্ষে নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এই অনুষ্ঠানে কমপক্ষে চার লক্ষ ছাত্রীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে কন্যাশ্রী প্রকল্পের টাকা ট্রান্সফার করা হয়। বিভিন্ন প্রতিযোগীতায় সফল ছাত্রীদের সংবর্ধনা দেন মুখমন্ত্রী। এছাড়াও কন্যাশ্রী প্রকল্প রূপায়ণে অবদানের জন্য সেরা তিনটি জেলা, তিনটি স্কুল এবং তিনটি কলেজকে পুরস্কার প্রদান করেন তিনি।
১৪/০৮/২০১৪
‘বিশ্ব বাংলা’র দ্বিতীয় বিপণন কেন্দ্র
•  দক্ষিণ কলকাতার দক্ষিণাপণে ‘বিশ্ব বাংলা’র দ্বিতীয় বিপণন কেন্দ্রটি উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী ।
২৪/০৭/২০১৪
মহানায়ক উত্তম কুমার - ২০১৪
•  বিগত দু বছরের মত এই বছরেও মহানায়ক উত্তম কুমারের প্রয়াণ দিবসে সাংস্কৃতিক জগতের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সম্মানিত করল রাজ্যসরকার। বাংলা চলচ্চিত্রের বিশিষ্ট শিল্পী-কলাকুশলীদের বিশেষ সম্মান ও সারা জীবনের অবদানের স্বীকৃতিও দেওয়া হল। নজরুল মঞ্চে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ বছরের মহানায়ক সম্মান পেলেন জনপ্রিয় তারকা দেব বর্ষীয়ান এবং অভিনেত্রী মৌসুমি চ্যাটার্জী । মহানায়িকার সম্মান পেলেন মুনমুন সেন। বিশেষ সম্মান পেলেন হিরণ চ্যাটার্জী, আবির চ্যাটার্জী, ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত, অঙ্কুশ হাজরা, ঋত্বিক চক্রবর্তী,খরাজ মুখার্জী, রুদ্রনীল ঘোষ, অরিন্দম শীল, মিমি চক্রবর্তী, সায়ন্তিকা ব্যানার্জী, পাওলি দাম, নুসরত জাহান, শ্রীলা মজুমদার এবং অনুরাধা রায়। চলচ্চিত্রে সারা জীবনের অবদানের জন্য সম্মান পেলেন চিরঞ্জিত চক্রবর্তী, সব্যসাচী চক্রবর্তী, মমতাশঙ্কর এবং দেবশ্রী রায়। সংগীতে সারা জীবনের অবদানের জন্য সম্মানিত করা হল কন্ঠশিল্পী কুমার শানুকে। বিশেষ চলচ্চিত্র সম্মান পেলেন সংগীত পরিচালক শিবাজী চট্টোপাধ্যায়, অরুন্ধতী হোম চৌধুরী এবং অধীর চ্যাটার্জী। বিশেষ পুরষ্কার পেলেন চিত্রগ্রাহক শীর্ষ রায় এবং সৌমিক হালদার। চলচ্চিত্র সম্পাদনায় বিশেষ অবদানের জন্য পুরস্কৃত হলেন বোধাদিত্য ব্যানার্জী এবং দেবকান্ত চক্রবর্তী। নিশপাল রানেকে শ্রেষ্ঠ প্রযোজকের পুরষ্কার দেওয়া হয়। দীপঙ্কর চাকী এবং গৌতম নাগ সম্মানিত হলেন শব্দগ্রহণের জন্য। আজাদ আহমেদকে সম্মানিত করা হয় শ্রেষ্ঠ প্রসাধন শিল্পী হিসাবে। শিল্প নির্দেশনার জন্য তন্ময় চক্রবর্তী, গৌতম বসু আর পোষাক পরিকল্পনার জন্য সাবর্ণী দাসকে বিশেষ পুরষ্কার দেওয়া হয়। চলচ্চিত্র নির্দেশনার জন্য বিশেষ পুরষ্কার পেলেন স্বপন সাহা, কমলেশ্বর মুখার্জী এবং প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য।
৩০/০৬/২০১৪
'হুল' দিবস - ২০১৪
•  ক্ষুদিরাম অনুশীলন কেন্দ্রে পালিত হল 'হুল' দিবস । আদিবাসী উন্নয়ন বিভাগ আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। দফতরটি মুখ্যমন্ত্রীর অধীনস্থ। সাম্রাজ্যবাদী ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে সাঁওতাল আন্দোলনের স্মরণে প্রতি বছর পালিত হয় এই হুল দিবস। শ্রদ্ধা জানানো হয় সিধু, কানহু, চাঁদ ও ভৈরব প্রমুখ সাঁওতাল আন্দোলনের নেতৃবৃন্দকে। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী এঁদের উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করেন।
১৯/০৬/২০১৪
সংখ্যালঘু দফতরের অনুষ্ঠান
•  নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে সংখ্যালঘু দফতর আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ছাত্রছাত্রীদের বৃত্তি প্রদান করার পাশাপাশি আলিম ও ফাজিল পরীক্ষায় কৃতী ছাত্রছাত্রীদের পুরস্কৃত করেন তিনি।
১০/০৬/২০১৪
২০১৪-র মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকে কৃতী সংবর্ধনা
•  কলকাতার টাউনহলে ২০১৪-র মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকে কৃতী ছাত্র-ছাত্রীদের সংবর্ধনা দেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। মাধ্যমিকের ৫৪ জন এবং উচ্চমাধ্যমিকের ২৮ জন ছাত্র-ছাত্রীকে সংবর্ধনা দেওয়া হয় এদিনের অনুষ্ঠানে।
২৬/০৫/২০১৪
'নজরুল তীর্থ'-র উদ্বোধন
•  রাজারহাট নিউটাউনে রাজ্য সরকারের নির্মিত 'নজরুল তীর্থ'-র উদ্বোধন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। কবির সৃষ্টিশীল চিন্তাভাবনাকে এই বহুমুখী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে। তথ্য-সংস্কৃতি বিভাগের বিভিন্ন পর্ষদ, আকাডেমি ও কেন্দ্রের পুরস্কার প্রদান করা হয় এদিনের অনুষ্ঠানে।
২০/০৫/২০১৪
বঙ্গভূষণ ও বঙ্গবিভূষণ- ২০১৪
•  কলকাতার সায়েন্স সিটি অডিটোরিয়ামে, বাংলার নিজ নিজ ক্ষেত্রে কৃতী ব্যক্তিদের বঙ্গভূষণ ও বঙ্গবিভূষণ সম্মান প্রদান করা হল। এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় রাজ্যপাল এম কে নারায়ণন ও মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
২১/০২/২০১৪
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস- ২০১৪
•  ১৯৫২ সালে পূর্ব পাকিস্তান বাংলা ভাষার স্বীকৃতির দাবীতে উত্তাল হয়ে ওঠে। পাক সেনাবাহিনীর গুলিতে নিহত ভাষা-শহীদদের স্মরণে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের বাংলাভাষী মানুষ প্রতিবাদে মুখর হন। বাংলা ভাষার দাবী পরবর্তীকালে মুক্তিযুদ্ধে পরিণত হয়। জন্ম নেয় স্বাধীন বাংলাদেশ। ১৯৯৯ সালে ইউনেস্কো ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবে চিহ্নিত করে। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী কলকাতার দেশপ্রিয় পার্কে একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। ভাষা-শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করেন তিনি।
১৪/০২/২০১৪
চারুকলা উৎসব- ২০১৪
•  অ্যাকাডেমি অফ ফাইন আর্টস-এ রাজ্য চারুকলা উৎসব ২০১৪-এর উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। ২৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে এই উৎসব। এই অনুষ্ঠানে ৮ জন প্রথিতযশা শিল্পীকে 'শিল্পী মহাসম্মান' ও 'শিল্পী সম্মান' পুরস্কার প্রদান করা হয়। 'শিল্পী মহাসম্মান' শিরোপা পেলেন ধীরেন্দ্রনাথ ব্রহ্ম, রবীন্দ্রনাথ মণ্ডল, কার্তিক পাইন, প্রকাশ কর্মকার ও ঊমা সিদ্ধান্ত এবং 'শিল্পী সম্মান' পেলেন সুনীল দে, অশোক ভৌমিক ও অরুণ কুমার চক্রবর্তী। শিল্পী যামিনী রায়ের আঁকা ছবির বইয়ের আনুষ্ঠানিক প্রকাশ করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
১৪/০২/২০১৪
মাটি উৎসব- ২০১৪
•  বাংলার ঐতিহ্যশালী হস্তশিল্পকে পুণরুজ্জীবনের লক্ষ্যে বিগত বছরের মতো এবারও বর্ধমানের পানাগড়ের বীরুডিহায় মাটি উৎসব শুরু হল। উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। মাটি উৎসবের সূচনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহাশ্বেতা দেবী ও অভিনেতা প্রসেনজিৎ-সহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।
১০/০২/২০১৪
বাংলা সঙ্গীত মেলা- ২০১৪
•  শুরু হল বাংলা সঙ্গীত মেলা ২০১৪। উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী সায়েন্স সিটির প্রেক্ষাগৃহে। মেলার উদ্বোধনী মঞ্চ থেকে বাংলা সঙ্গীত জগতের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বদের 'সঙ্গীত সম্মান' ও 'সঙ্গীত মহাসম্মান' পুরস্কার দেওয়া হয়।
০৯/০২/২০১৪
টেকনিশিয়ান্স স্টুডিওর উদ্বোধন
•  টালিগঞ্জে সিনেমার নির্মাণশালা, ঐতিহ্যশালী টেকনিশিয়ান্স স্টুডিও সেজে উঠল নতুন করে। নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিনোদন জগতের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।
০৬/০২/২০১৪
১৮তম যাত্রা উৎসবের শুভ উদ্বোধন
•  বারাসতের কাছারি ময়দানে ১৮তম যাত্রা উৎসবের উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। কাছারি ময়দানে এই উৎসব চলবে ৬ থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এছাড়া বাগবাজারে ফণীভূষণ বিদ্যাবিনোদ যাত্রামঞ্চে ৭ থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত যাত্রা উৎসব চলবে। পশ্চিমবঙ্গ যাত্রা অ্যাকাডেমির ব্যবস্থাপনায় এই যাত্রা উৎসবে অংশগ্রহণ করছে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের যাত্রাদল। এদিনের অনুষ্ঠানে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, দুঃস্থ যাত্রাশিল্পীদের পেনশন ৭,০০০টাকা থেকে বাড়িয়ে ৮,০০০টাকা করা হচ্ছে।
২৩/০১/২০১৪
নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১১৮তম জন্মদিন পালন
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উপস্থিতিতে এই প্রথমবার আনুষ্ঠানিকভাবে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১১৮তম জন্মদিন পালিত হয় দার্জিলিং-এর ম্যালে।
২২/০১/২০১৪
দার্জিলিং-এ নিবেদিতা শিক্ষা ও সংস্কৃতি কেন্দ্রের উদ্বোধন
•  দার্জিলিং-এ, রামকৃষ্ণ মিশন আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে, নিবেদিতা শিক্ষা ও সংস্কৃতি কেন্দ্রের উদ্বোধন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। দার্জিলিং ও জলপাইগুড়ি জেলা পুলিশ, শিলিগুড়ি পুলিশ কমিশনারেট এবং রাজ্য ক্রীড়া দপ্তরের যৌথ পরিচালনায় উত্তরবঙ্গের তরাই-ডুয়ার্স অঞ্চলের বিভিন্ন জায়গায় দু’মাস ব্যাপী একটি ক্রীড়া প্রতিযোগীতার আয়োজন করা হয়। দার্জিলিং –এর লেবং স্টেডিয়ামে আয়োজিত এই ক্রীড়া প্রতিযোগীতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
২১/০১/২০১৪
তামাং সম্প্রদায়ের জাতীয় কনভেনশন
•  দার্জিলিং-এর মিরিকে তামাং সম্প্রদায়ের জাতীয় কনভেনশনে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
২০/০১/২০১৪
উত্তরবঙ্গ উৎসব
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে পাঁচদিন ব্যাপী উত্তরবঙ্গ উৎসবের সূচনা করেন। উত্তরবঙ্গের ৬টি জেলার ৭জন ব্যক্তিকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য ‘বঙ্গসম্মান’ দিয়ে পুরস্কৃত করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
২০/০১/২০১৪
‘উত্তরবঙ্গ উৎসব' - ২০১৫
•  শিলিগিড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে সপ্তাহব্যাপী ‘উত্তরবঙ্গ উৎসব, ২০১৫’ –এর সূচনা করলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এই অনুষ্ঠানে সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের বেশ কয়েকজন কৃতী ব্যক্তিকে ‘বঙ্গরত্ন’ সম্মান প্রদান করা হয়। উত্তরবঙ্গের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে তুলে ধরতে ২০১২ সাল থেকে শুরু করে প্রতি বছরই পালিত হয় এই উত্তরবঙ্গ উৎসব।
১৮/০১/২০১৪
কলকাতা পুলিশের বার্ষিক সম্মানজ্ঞাপন অনুষ্ঠান
•  কলকাতা পুলিশের বার্ষিক সম্মানজ্ঞাপন অনুষ্ঠানে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী কৃতি পুলিশকর্মীদের পুরস্কৃত করেন।
১০/০১/২০১৪
স্বামী বিবেকানন্দের সার্ধশতবর্ষের সমাপ্তি অনুষ্ঠান
•  স্বামী বিবেকানন্দের জন্ম সার্ধশতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে রেড রোডে এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করে রাজ্য সরকার। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উপস্থিতিতে মহা সমারোহে, কুচকাওয়াজ ও অন্যান্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে স্বামীজির প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয়।
০৩/০১/২০১৪
টেলি অ্যাওয়ার্ড
•  বাংলা টেলিভিশন জগতে ‘টেলি অ্যাওয়ার্ড’ সূচনা করল রাজ্য সরকার। টেলি অ্যাকাডেমি আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে বাংলা টেলিভিশন জগতের বিশিষ্টদের সম্বর্ধনা দিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। জোছন দস্তিদার ও যীশু দাশগুপ্তকে মরণোত্তর সম্মান এবং সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়, মাধবী মুখোপাধ্যায়, মনোজ মিত্র ও সব্যসাচী চক্রবর্তীকে সর্বকালের অবদানের সম্মান প্রদান করা হয়। এছাড়া, টেলিভিশন-কলাকুশলীদের পুরস্কৃত করার পাশাপাশি তাঁদের স্বাস্থ্যবিমার কথাও বলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী।
২০/১২/২০১৩
৩য় কলকাতা আন্তর্জাতিক শিশু চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধন
•  নন্দনে ৩য় কলকাতা আন্তর্জাতিক শিশু চলচ্চিত্র উৎসবের সূচনা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন প্রখ্যাত অভিনেতা মোহন আগাসে।
২০/১২/২০১৩
কলকাতা ক্রিস্টমাস কার্নিভালের উদ্বোধন
•  পার্ক স্ট্রিট অ্যালেন পার্কে কলকাতা ক্রিস্টমাস কার্নিভালের সূচনা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এই উৎসব চলবে আগামী বছর ২০১৪-র ২ জানুয়ারি পর্যন্ত।
১৭/১১/২০১৩
১৯তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সমাপ্তি অনুষ্ঠান
•  সায়েন্স সিটি অডিটোরিয়ামে কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সমাপ্তি অনুষ্ঠানে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী চলচ্চিত্র জগতের ‘পঞ্চকন্যা’-কে সংবর্ধনা দিলেন। ‘পঞ্চকন্যা’ সম্মানে মৌসুমি চ্যাটার্জ্জি, রানি মুখার্জি, সুস্মিতা সেন, বিপাশা বসু ও কোয়েল মল্লিক সম্মানিত হলেন।
১০/১১/২০১৩
১৯তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধন
•  ১৯তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধন হল নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে। উদ্বোধন করলেন কালজয়ী অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন এবং মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট অভিনেতা কামাল হাসান, মিঠুন চক্রবর্তী, জয়া বচ্চন ও বাংলার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাস্যাডর শাহরুখ খান। মুম্বাই ও কলকাতা চলচ্চিত্র জগতের বিশিষ্ট শিল্পী এবং কলাকুশলীদের উপস্থিতিতে এক বর্ণাঢ্য উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সাক্ষী থাকলো শহর কলকাতা।
০৩/০৯/২০১৩
লেপচা উন্নয়ন পর্ষদ আয়োজিত অনুষ্ঠান
•  কালিম্পঙের মেলা মাঠে লেপচা উন্নয়ন পর্ষদের বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। 'ইন্ডিজেনাস লেপচা ট্রাইবাল অ্যাসোসিয়েশন'-এর পক্ষে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীকে তাঁদের সম্প্রদায়ের বিশেষ সম্মান 'কিংচুম দারমিত' (ভাগ্যবিধাতা) সম্মানে সম্মানিত করা হয়।
৩০/০৮/২০১৩
কলকাতা পুলিশের আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ‘জয় হে’
•  নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে কলকাতা পুলিশের আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ‘জয় হে’ অনুষ্ঠিত হল। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী মুখ্য অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন।
১৫/০৮/২০১৩
৬৭তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন
•  রেড রোডে ৬৭তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
০৮/০৮/২০১৩
২২শে শ্রাবণ, কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭২তম প্রয়াণ দিবস
•  ২২শে শ্রাবণ, কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭২তম প্রয়াণ দিবসে জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়িতে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। ঐ দিন বিশ্বকবির অতুলনীয় সৃষ্টি 'গীতাঞ্জলি'র ১৪টি ভাষায় অনুবাদের সংকলন 'সং অফারিংস' গ্রন্থটি প্রকাশ করেন তিনি।
২৪/০৭/২০১৩
‘উত্তমকুমার স্মরণে’- ২০১৩
•  মহানায়ক উত্তম কুমারের ৩৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে কলকাতার নজরুল মঞ্চে রাজ্যসরকার আয়োজন করেছিল ‘উত্তমকুমার স্মরণে’। এই অনুষ্ঠানে চলচ্চিত্র শিল্পের সঙ্গে যুক্ত বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও সংস্থাকে পুরস্কৃত করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
২৫/০৫/২০১৩
কাজী নজরুল ইসলামের ১১৪ তম জন্মবার্ষিকী উদ্‌যাপন
•  কাজী নজরুল ইসলামের ১১৪ তম জন্মবার্ষিকীতে নজরুল মঞ্চে 'নজরুল জন্ম জয়ন্তী' -র উদ্বোধন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কাজী কল্যাণী, জয় গোস্বামী, যোগেন চৌধুরি, বিভাস চক্রবর্তী প্রমুখ।
২০/০৫/২০১৩
বঙ্গবিভূষণ এবং বঙ্গভূষণ ২০১৩
•  সায়েন্সসিটিতে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বদের, তাঁদের নিজ নিজ ক্ষেত্রে অবদানের জন্য বঙ্গবিভূষণ এবং বঙ্গভূষণে পুরস্কৃত করা হয়।
০৯/০৫/২০১৩
২৫ শে বৈশাখ উদ্‌যাপন
•  কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫২ তম জন্ম বার্ষিকীতে রবীন্দ্র সদনে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দ্বিজেন মুখোপাধ্যায়, সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়, সুমিত্রা সেন, পন্ডিত অজয় চক্রবর্তী, যোগেন চৌধুরি, ইন্দ্রনীল সেন, স্বাগতালক্ষ্মী দাশগুপ্ত এবং প্রমিতা মল্লিক প্রমুখ বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব।
০৬/০৪/২০১৩
বাংলা সংগীত মেলা ২০১৩ –এর উদ্বোধন
•  কলকাতার নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী 'বাংলা সংগীত মেলা ২০১৩' - এর উদ্বোধন করেন। ঐ অনুষ্ঠানে প্রখ্যাত সংগীত ব্যক্তিত্বদের সংবর্ধনা দেন তিনি।
২৬/০৩/২০১৩
বসন্ত উৎসব
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী কলকাতার নজরুল মঞ্চে কলকাতা ইমপ্রুভমেন্ট ট্রাস্ট এবং কলকাতা মেট্রোপলিটন ডেভলপমেন্ট অথরিটি আয়োজিত বসন্ত উৎসবে উপস্থিত ছিলেন।
২১/০২/২০১৩
আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস উদ্‌যাপন
•  আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবসে, ভাষা শহিদ স্মরণে, কলকাতার দেশপ্রিয় পার্কে ভাষা শহিদ মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় 'অমর একুশে'। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
০৯/০২/২০১৩
মাটি উৎসবের উদ্বোধন
•  মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী বর্ধমানের পানাগড়ে মাটি উৎসবের উদ্বোধন করেন।
০৮/০২/২০১৩
১৭ তম যাত্রা উৎসবের উদ্বোধন
•  বারাসতের কাছারি ময়দানে ১৭ তম যাত্রা উৎসবের উদ্বোধন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
২৮/০১/২০১৩
'উত্তর বঙ্গ উৎসব' এর উদ্বোধন
•  শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে 'উত্তর বঙ্গ উৎসব' এর উদ্বোধন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
২৬/০১/২০১৩
৬৪ তম প্রজাতন্ত্র দিবস উদ্‌যাপন
•  কলকাতার রেড রোডে প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন মাননীয় রাজ্যপাল। অনুষ্ঠিত হয় কুচকাওয়াজ ও বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
২৬/০১/২০১৩
কলকাতার ৩৭ তম বই মেলার উদ্বোধন
•  মিলন মেলা প্রাঙ্গনে, মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর উপস্থিতিতে, ৩৭ তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বই মেলার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের বিশিষ্ট প্রাবন্ধিক ও শিক্ষাবিদ আনিসুজ্জামান।
২৩/০১/২০১৩
নেতাজীর জন্মবার্ষিকী উদ্‌যাপন
•  নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর ১১৬ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কলকাতার এলগিন রোডে নেতাজী ভবনে উপস্থিত ছিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
২১/০১/২০১৩
প্রাক্তন ফুটবলারদের সংবর্ধনা
•  বাংলার প্রাক্তন ফুটবলারদের ক্যানিং স্পোর্টস কমপ্লেক্সে সংবর্ধনা দেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
১২/০১/২০১৩
'বিশ্ব যুব উৎসব' এর উদ্বোধন
•  মাননীয় রাজ্যপাল এম কে নারায়ণন-এর উপস্থিতিতে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী সল্টলেকের যুব ভারতী ক্রীড়াঙ্গনে তিনদিন ব্যাপী 'বিশ্ব যুব উৎসব' এর উদ্বোধন করেন।
০৩/০১/২০১৩
ভারতীয় বিজ্ঞান কংগ্রেসের শততম অধিবেশনের সূচনা
•  যুব ভারতী ক্রীড়াঙ্গনে ভারতীয় বিজ্ঞান কংগ্রেসের শততম অধিবেশনের সূচনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় রাজ্যপাল এবং মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এছাড়াও দেশ-বিদেশের বরেণ্য বিজ্ঞানীরা উপস্থিত ছিলেন।
০৩/০১/২০১৩
ভারত ও পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেট তারকাদের সংবর্ধনা
•  কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে ভারত ও পাকিস্তান দু’দেশের প্রাক্তন ক্রিকেট তারকা বিষেন সিং বেদী, অজিত ওয়াড়েকর, সুনীল গাভাস্কার, কপিল দেব, দিলীপ বেঙ্গসরকার, মুস্তাক মহম্মদ, ইন্তিখাব আলম, ওয়াসিম আক্রম, রামিজ রাজা, সৌরভ গাঙ্গুলি প্রমুখ ক্রিকেটারদের সংবর্ধনা জানান মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।