খবর
০৫/০৫/২০১৭
•  নদীয়ার কৃষ্ণনগরে জেলার প্রশাসনিক বৈঠক করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
০৪/০৫/২০১৭
•  চলতি জেলা সফরে আজ মালদা জেলার প্রশাসনিক বৈঠক করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। পরে, মালদা জেলার ইংরেজবাজার ডিএসএ মাঠের জনসভা থেকে একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন তিনি। এই জনসভা থেকে বিভিন্ন সরকারি পরিষেবাও প্রদান করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। তিনি ঘোষণা করেন এখন থেকে মালদার আম যাবে ইউরোপ, আবু ধাবি ও নেপালে। এদিন মালদা মেডিকেল কলেজে মাদার এন্ড চাইল্ড হাব থেকে শুরু করে মানিকচক ডিগ্রী কলেজের ভবন, থানা, কর্ম তীর্থ, কৃষক বাজার, রাস্তা, ছাত্রাবাস, মিনি ইন্ডোর স্টেডিয়াম, স্বাস্থ্য কেন্দ্র, ডাক্তার ও নার্সদের আবাস, জল সরবরাহ প্রকল্প সহ বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। মডেল স্কুল, বিদ্যুৎ সাব স্টেশন, গৃহহীনদের জন্য আবাসন, স্বাস্থ্য কেন্দ্র, ছাত্রাবাস, সরকারি ভবন, গোডাউনসহ ইংলিশবাজার ব্লকে মালদা বিমানবন্দরের উন্নতিকরণ প্রকল্পেরও ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন তিনি। এ ছাড়া বিভিন্ন পরিষেবা প্রদান করেন তিনি।
০৩/০৫/২০১৭
•  তিন দিনের জেলা সফরে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এদিন দক্ষিণ দিনাজপুরের নারায়ণপুর হাই স্কুল ময়দানে, একটি সরকারি অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন তিনি। তপন ব্লক হাসপাতালের নতুন আউটডোর ইউনিট, হিলি পলিটেকনিক কলেজ, কর্ম তীর্থ, সরকারি ভবন, সড়ক প্রকল্প, জল সরবরাহ প্রকল্প, অঙ্গনওয়াড়ী কেন্দ্র, ছাত্রীনিবাস, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রকল্পসহ বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। এছাড়া, গর্ভবতী মহিলাদের প্রতিক্ষালয় মডেল স্কুল, বিদ্যুৎ কেন্দ্র, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রকল্প, অঙ্গনওয়াড়ী কেন্দ্র, সরকারি ভবন, গোডাউন, জল সরবরাহ প্রকল্পসহ বিভিন্ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তরও স্থাপন করেন তিনি। এছাড়া ‘কন্যাশ্রী’, ‘সবুজ সাথী’র সাইকেল, কিষান ক্রেডিট কার্ড, গতিধারা, কৃষি যন্ত্রপাতি, গীতাঞ্জলী, স্বাস্থ্য সাথীসহ বিভিন্ন পরিষেবা প্রদান করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। এদিন, জেলার প্রশাসনিক বৈঠক করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী।
০২/০৫/২০১৭
•  কট্টরপন্থীদের সমাজের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনার জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ নিচ্ছে রাজ্য সরকার। মঙ্গলবার একথা জানান মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী। এদিন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী জানান, চলতি বর্ষে ১১১ জনসহ রাজ্যে এখনও পর্যন্ত মোট ৩২৮ জন কট্টরপন্থী আত্মসমর্পণ করেছে। এর মধ্যে ২০৫ জনকে হোম গার্ড পদে নিয়োগ করা হয়েছে। আরও ৯ জনের চাকরি দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে। সব মিলিয়ে ২২৫ জনের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হয়েছে, জানান তিনি। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী আরও জানান কর্মসংস্থান ছাড়াও আর্থিক সহায়তা, গৃহ নির্মাণ, চিকিৎসা, সন্তানদের পঠনপাঠনেও সাহায্য করবে রাজ্য সরকার।